ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত ছবি

মুম্বই: মহারাষ্ট্রের আহমেদনগরের জনসভায় দাঁড়িয়ে জনগণের পছন্দ জানতে চাইলেন নরেন্দ্র মোদী৷ সরাসরি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন সৎ চৌকিদার নাকি দুর্নীতিবাজ নামদার, কাকে পছন্দ আপনাদের? কংগ্রেস ও এনসিপিকে জোড়া ফলায় বিদ্ধ করে প্রধানমন্ত্রীর বার্তা লোকসভা ভোটে যারা দেশের সুরক্ষাকে বাজিতে লাগায়, তাদের ভোট দেবেন না৷

বলাই বাহুল্য কংগ্রেসের ইশতেহারে কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ থাকায়, তাকেই এদিন নিশানা করেন মোদী৷ এদিন তিনি বলেন দেশের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত নয় কংগ্রেস৷ তাঁদের লক্ষ্য শুধু ভোটে জেতা৷ কংগ্রেস হঠান, গরিবি হঠান এই শ্লোগান তোলেন মোদী৷

আরও পড়ুন : ‘কিউ কি মন্ত্রী ভি কভি গ্র্যাজুয়েট থি’, স্মৃতিকে খোঁচা কংগ্রেসের

গত পাঁচ বছরে ভারতে সুষ্ঠু ও শক্তিশালী সরকার গড়ে উঠেছে বলে দাবি করে মোদীর বক্তব্য তার আগে ১০ বছর ধরে “রিমোট কন্ট্রোলের সরকার” দেখেছে বিশ্ব৷ আহমেদনগরে সেই কংগ্রেস সরকারকে দুর্নীতির সরকার বলেও আখ্যা দেন প্রধানমন্ত্রী৷

মোদী বলেন আজ গোটা বিশ্ব ভারতকে এক শক্তিশালী দেশ হিসেবে চেনে৷ কিন্তু কংগ্রেসের হাতে পরে ভারতের সেই পরিচয় মুছে যেতে বসেছিল৷ তাই দেশের জনগণকেই ঠিক করতে হবে, তারা কাকে বাছবেন৷ সৎ আর অসতের পার্থক্য মানুষ বুঝতে পারছেন বলেই মন্তব্য করেন তিনি৷ নিজেকে ফের চৌকিদার বলে ব্যাখ্যা করে তাঁর মত ভারতের নায়কদের দেখে ভোট দিন৷ আর নয়তো তার বিকল্প পাকিস্তানের হয়ে সওয়াল করা ব্যক্তিদের জেতান৷ পছন্দ আপনাদের৷

আরও পড়ুন : মোদী ফের প্রধানমন্ত্রী হলে দেশ রসাতলে যাবে: সিধু

তবে উল্লেখযোগ্য বিষয়, প্রধানমন্ত্রী তাঁর এই বক্তব্য সরাসরি বালাকোটের এয়ার স্ট্রাইক বা দেশের সেনার গৌরব গাঁথার কথা তুলে ধরেননি৷ তবে ইউপিএ সরকারের আমলের ব্যর্থতার কথাই বারবার উঠে এসেছে তাঁর মুখে৷ তিনি বলেছেন বিগত সরকার নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গিদের খতম করে আসার সাহস দেখায়নি৷

এদিন এনসিপির বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন মোদী৷ বলেন ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টি প্রধান শরদ পাওয়ারও কংগ্রেসের সুরে সুর মিলিয়ে জম্মু কাশ্মীরের স্বাধীনতা চাইছেন৷ ভারত থেকে কাশ্মীরকে আলাদা করে দিতে চাইছেন৷ উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রে কংগ্রেস ও এনসিপি জোট করে প্রতিন্দ্বন্দিতা করছে৷