স্টাফ রিপোর্টার, বনগাঁ: ১৪ বছরের এক কিশোরীকে যৌন নির্যাতনের দায়ে দোষী সাব্যস্ত হল গৃহশিক্ষক৷ দোষী শিক্ষকের দশ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও জরিমানার নির্দেশ দিল বনগাঁ মহকুমা আদালত৷ রায় ঘোষণা করেন বিচারক বিদ্যুৎ কুমার রায়। সাজাপ্রাপ্ত শিক্ষকের নাম গণেশ মণ্ডল ৷

ঘটনাটি দু’বছর আগের। ওই কিশোরী গণেশের কাছে পড়ত। গণেশ বাড়িতেই আসত তাকে পড়াতে৷ অভিযোগ, পড়ানোর ফাঁকে ওই ছাত্রীকে যৌন হেনস্থা করত সে৷ নির্যাতিতা কিশোরী বাড়িতে বিষয়টি জানাতেই ২০১৭ সালের অগস্ট মাসে বাগদা থানায় অভিযোগ দায়ের করে মেয়েটির পরিবার। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ গণেশ মণ্ডলকে গ্রেফতার করে৷

এরপর শুরু হয় বিচার পর্ব। জেল হেফাজতে ধৃতকে রেখেই চলে বিচার পর্ব। সরকারি আইনজীবী সমীর দাস বলেন,”মোট ১০জন ব্যক্তি স্বাক্ষী দিয়েছেন এই মামলায়। ওই শিক্ষককে ধর্ষণ ও পকসো মামলায় ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেন বিচারক।’’