নয়াদিল্লি: যোগীর রাজ্যে বিভিন্ন থানা ও ট্রাফিক সিগন্যালে নিযুক্ত হোমগার্ডদের চাকুরি যাচ্ছে ৷ এমন পদক্ষেপে সেখানে প্রায় ২৫ হাজার হোম গার্ড চাকরি হারাতে পারে৷ কারণ রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে আপাতত তাদের কাজ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে ৷ এরপরে প্রয়োজন মতো তাদের কাজের ব্যবস্থা করা হবে ৷

প্রসঙ্গত পুলিশের বেতন কাঠামোর সঙ্গে সমতা রেখে এই হোম গার্ডদেরও মাইনে বাড়ানো হয়েছিল৷ আর তার জেরে এই বাবদ সরকারি খরচ অনেকটাই বেড়ে যায়৷ ফলে যোগী সরকার এই খরচের চাপ কমাতেই এতজন হোম গার্ড বরখাস্ত করার প্রস্তাব দেন বলে সূত্রের খবর ৷

এমন সিদ্ধান্তের জেরে উত্তর প্রদেশে হোমগার্ডের সংখ্যা প্রায় ৩২ শতাংশ কমে গেল ৷ বর্তমানে এই রাজ্যে প্রায় ৯০,০০০ হোমগার্ড নিযুক্ত রয়েছে ৷ তারা দৈনিক ৫০০ টাকা বেতন পান৷ এই সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, শীঘ্রই এই হোমগার্ডদের ২০১৬ সালের ডিসম্বর মাস থেকে বকেয়া বেতন দেওয়া হবে ৷

এদিকে কয়েকদিন আগে ধর্মঘটে সামিল হওয়ার জন্য তেলেঙ্গানা সরকার রাজ্য পরিবহণ নিগমের প্রায় ৪৮,০০০ কর্মীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় । গত রবিবার রাতেই ওই কর্মীদের বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় তেলেঙ্গানার কেসিআর সরকার। কারণ এই পরিবহন ধর্মঘটকে সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও “ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ” বলে চিহ্নিত করেন৷ ফলে তা নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধতে দেখা যায়৷