নয়াদিল্লি: বাধ সাধল পিঠের চোট। অ্যাথলেটিক্স বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ছিটকে গেলেন হিমা দাস। বুধবার অ্যাথেলেটিক্স ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার তরফ থেকে এক বিবৃতি মারফৎ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে হিমার ছিটকে যাওয়ার বিষয়টি জানানো হয়েছে।

গতবছর এশিয়ান গেমসের পরই পিঠের চোট গ্রাস করেছিল অসমের এই স্প্রিন্টারকে। চলতি বছর এপ্রিলে দোহায় অনুষ্ঠিত এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ব্যক্তিগত ৪০০মিটার ইভেন্টের মাঝপথে নাম প্রত্যাহার করে নেন হিমা। এরপর থেকে ট্র্যাকে লম্বা দূরত্ব অতিক্রম করতে গিয়ে বারবারই পিঠের চোট সমস্যায় ফেলেছে ‘ঢিং এক্সপ্রেস’কে। বুধবার এএফআই’য়ের তরফ থেকে বিবৃতিতে জানানো হয়, ‘দুর্ভাগ্যবশত পিঠের চোটের কারণে ৪০০মিটার অ্যাথলিট হিমা দাস আসন্ন বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।’

উল্লেখ্য, ওয়ার্ল্ড জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন হিমার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণের বিষয়টিতে শুরু থেকেই দানা বেঁধেছিল বিতর্ক। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য ৪x৪০০ রিলে এবং ৪x৪০০মিটার মিক্সড রিলে ইভেন্টের প্রাথমিক তালিকায় নাম ছিল না হিমার। মেয়েদের ৪x৪০০মিটার রিলে ইভেন্টের জন্য এএফআই’র তরফ থেকে যে তালিকা পাঠানো হয়েছিল তাতে জিসনা ম্যাথিউ, এমআর পুভাম্মা, রেবতী বীরামণি, সুভা ভেঙ্কটেশন, ভিকে বিসমায়া, রামরাজ বিথ্যার নাম অনুমোদন থাকলেও প্রাথমিকভাবে বাদ পড়েছিল হিমার নাম।

একইভাবে মিক্সড রিলে ইভেন্টে জ্যাকব আমোজ, মহম্মহদ আনাস ও টম নির্মলের সঙ্গে মহিলা প্রতিযোগী হিসেবে পাঠানো হয়েছিল জিসনা, পুভাম্মা ও বিসমায়ার নাম। অথচ ছিলেন না হিমা। পরে যদিও তালিকা পুনর্বিবেচনা করে ৯ সেপ্টেম্বর দোহা বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের (২৭ সেপ্টেম্বর-৬ অক্টোবর) জন্য এএফআই নির্বাচক কমিটি ১৯ বছরের হিমার নাম নথিভুক্ত করে। কিন্তু শেষমেষ পিঠের চোট অন্তরায় হয়ে দাঁড়াল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে দেশের হয়ে হিমার পদকজয়ের পথে।

যদিও ইউরোপের বিভিন্ন অ্যাথলেটিক্স মিটে সম্প্রতি ৫টি সোনা জিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের আগে আশা জাগিয়েছিলেন আদরের ‘ঢিং এক্সপ্রেস’। যার মধ্যে ২০ জুলাই নোভ মেস্তো অ্যাথলেটিক মিটে ৪০০মিটারে সোনা জয় ছিল উল্লেখযোগ্য। মরশুমের সেরা টাইমিং (৫২.০৯) করে চেক প্রজাতন্ত্রে সোনার পদক গোলায় ঝুলিয়েছিলেন অসমের মেয়ে। পাশাপাশি তাবোর অ্যাথলেটিক মিটে ২০০মিটার ইভেন্টেও সোনা ছিল হিমার ঝুলিতে।