নয়াদিল্লি: গত মাসে যেখানে শেষ করেছিলেন, যেন সেখান থেকেই শুরু করলেন। আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স সার্কিটে ফের দেশের নাম রোশন করলেন হিমা দাস। গত ২ জুলাই থেকে যে সোনার দৌড় শুরু হয়েছিল হিমার, তার রেশ জারি রেখে চেক প্রজাতন্ত্রের মাটিতে ফের সোনা জিতে নিলেন আদরের ‘ঢিং এক্সপ্রেস’। অ্যাথলেটিকি মিতিনিক রেইটার ইভেন্টে রবিবার ৩০০ মিটার ইভেন্টে সোনার পদক গলায় ঝোলালেন অসমের হিমা।

তবে শুধু হিমাই নয়, চেক প্রজাতন্ত্রে রবিবার দেশকে সোনা এনে দিলেন তারকা স্প্রিন্টার মহম্মদ আনাসও। পুরুষদের ৩০০ মিটার দৌড়ে সোনা জিতলেন তিনিও। তবে আনাসের চেয়েও দেশের ক্রীড়াপ্রেমীরা উচ্ছ্বসিত ঊনিশ বছরের হিমার ধারাবাহিক সাফল্যে। কারণ বিগত ৪৭ দিনে এই নিয়ে বিদেশের মাটিতে ষষ্ঠ সোনা জয় করলেন হিমা। উল্লেখ্য, ২ জুলাই থেকে ২০ জুলাই অবধি সময়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ৫টি সোনা জিতে নিয়েছিলেন ‘ঢিং এক্সপ্রেস’। যার শেষটি এসেছিল চেক প্রজাতন্ত্রের মাটিতেই।

উল্লেখ্য, ২ জুলাই পোজনানের অ্যাথলেটিক্স গ্রাঁ পি’তে ২০০ মিটার ইভেন্টে মরশুমের প্রথম সোনা জয় করেন হিমা। এরপর ৭ জুলাই পোল্যান্ডের কুতোঁ অ্যাথলেটিক্স মিটে দ্বিতীয় সোনা জেতেন ‘ঢিং এক্সপ্রেস’। স্বপ্নের ফর্ম বজায় রেখে চেক প্রজাতন্ত্রের ক্লাদনো অ্যাথলেটিক্স মিট ও ট্যাবোর অ্যাথলেটিক্স মিটে যথাক্রমে তৃতীয় ও চতুর্থ সোনা জিতে নেন অসমের বছর ঊনিশের এই দৌড়বিদ। আর চেক প্রজাতন্ত্রের মাটিতেই নোভ মেস্তো নাড মেটুজি গ্রাঁ পি-তে ৪০০ মিটার ইভেন্টে গতমাসে পঞ্চম স্বর্ণপদক জিতে নিয়েছিলেন অসমের এই স্প্রিন্টার।

সোনা জয়ের পর এদিন টুইটারে স্বর্নপদক গলায় পোডিয়ামে দাঁড়িয়ে ছবি পোস্ট করেন হিমা। অন্যদিকে উচ্ছ্বসিত আনাসও টুইট করে সোনা জয়ের খবর জানান অনুরাগীদের। জাতীয় রেকর্ড হোল্ডার মহম্মদ আনাস দোহার মাটিতে অনুষ্ঠিত হতে চলা বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ৪০০ মিটার ইভেন্টে যোগ্যতা অর্জন করে ফেলেছেন ইতিমধ্যেই।