কলকাতা: অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে। এই মামলার শুনানিতে হলফনামা তলব করা হল রাজ্য সরকার ও নির্বাচন কমিশনের কাছে। ভারতীয় বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সংগঠনের তরফ থেকে ভোট নিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল।

এই সংক্রান্ত আরও খবর পড়ুন:

১.পুর নির্বাচন: শহরে আক্রান্ত সিপিএম

২.পুননির্বাচনেও অবাধ সন্ত্রাসের অভিযোগ

৩.”নির্বাচনে সন্ত্রাস দেখতে অভ্যস্ত বাংলা”

শুক্রবার সেই মামলার শুনানি ছিল হাইকোর্টে। শুনানিতে হলফনামা দাবি করে প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী ৬ সপ্তাহের মধ্যে এই হলফনামা জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। পাশাপাশি, রাজ্য ও কমিশনকে ভর্ৎসনার মুখেও পড়তে হয়েছে আদালতে। ভোটারদের জন্য যে টোল ফ্রি নম্বর চালু করা হয়েছিল, তা কতটা কার্যকর হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

সাম্প্রতিক পুর নির্বাচনে সন্ত্রাসের অভিযোগ উঠেছে কলকাতা তথা গোটা রাজ্য জুড়ে। সন্ত্রাস নিয়ে আলোড়ন হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। কোথাও কোথাও দ্বিতীয়বার নির্বাচনও করা হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।