স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা আবহে উচ্চ মাধ্যমিকের তিনটি পরীক্ষা স্থগিত হয়ে গিয়েছে। সরকারি সূত্রে খবর, ১০ জুনের পর সেই পরীক্ষা হবে। আর তা হয়ে যাওয়ার পরই ৮ লক্ষ ছাত্রছাত্রীর খাতা দেখা শুরু হবে। ১৫ জুনের পর থেকে খাতা দেখা শুরু হবে বলে জানা যাচ্ছে। সূত্রের খবর, উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের চারটি আঞ্চলিক অফিসকে রাজ্য সরকার একটি নির্দেশিকা পাঠাচ্ছে।

সেখানে বলা হয়েছে, ৪ থেকে ১৫ মে-র মধ্যে রেলস্টেশন, থানা এবং ট্রেজারি থেকে আঞ্চলিক অফিসগুলি উত্তরপত্র সংগ্রহ করবে। ৪ মে থেকে ১০ জুনের মধ্যে প্রধান পরীক্ষকদের কাছে উচ্চ মাধ্যমিকের উত্তরপত্র পৌঁছবে। পাঁচদিনের মধ্যে তাঁরা পরীক্ষকদের হাতে খাতাগুলি তুলে দেবেন। এছাড়াও, উত্তরপত্র বিলি করার সময় ৫ জনের বেশি পরীক্ষককে একসঙ্গে ডাকা যাবে না। প্রত্যেককে সর্তকতা মেনে কাজ করতে হবে।

চলতি বছরে পরীক্ষকদের নিয়ে কোনও বৈঠক হবে না বলেও নির্দেশিকায় জানানো হচ্ছে। এদিকে স্থগিত উচ্চ মাধ্যমিকের তিনটি পরীক্ষা হওয়ার পর ফলপ্রকাশ জুলাই মাসের আগে সম্ভব নয়। ফলে কলেজে স্নাতকে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে আগস্ট মাস জুড়ে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)-র সুপারিশ, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাবর্ষ জুলাই মাসের পরিবর্তে সেপ্টেম্বরে শুরু হোক।

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের প্রথম সেমেস্টার হবে না। শুধুমাত্র বছরের শেষ সেমেস্টারটি হবে। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন, “আমাদের কাছে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক থেকে কোনও চিঠি আসেনি।

ইউজিসির তরফেও চিঠি দেওয়া হয়নি। রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলি কিছু পরামর্শ সরকারকে দিয়েছে। ছাত্র সমাজের স্বার্থে রাজ্য সরকার তা কার্যকর করবে।” উল্লেখ্য, ১২ মার্চ শুরু হয় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। ২১ তারিখ পর্যন্ত হওয়ার পর তা করোনা সতর্কতার জেরে স্থগিত হয়ে যায়।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব