স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি : সেপ্টেম্বরের শেষেও নিম্মচাপের দুর্দান্ত ম্যাচের জেরে বিধ্বস্ত উওরের জেলা গুলি। গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টির ফলে উত্তরবঙ্গে কোথাও ফুঁসছে নদী, তো আবার কোথাও নেমেছে ধস। টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিতে নাজেহাল অবস্থা উত্তরের মানুষজনের।

আগামী শনিবার অবধি চলবে এই বৃষ্টির দাপট এমনটাই জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর। আবহাওয়া অফিস সূত্রে খবর, মৌসুমী অক্ষরেখা অমৃতসর থেকে মালদহ হয়ে হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের উপর দিয়ে অসম ছুঁয়ে নাগাল্যান্ডের দিকে রয়েছে। ছত্তিশগড় থেকে মধ্যপ্রদেশ হয়ে নিম্নচাপ পশ্চিমবঙ্গে ঢুকে পড়েছে ।

উত্তরবঙ্গ হয়ে এই নিম্নচাপ উত্তর – পূর্ব ভারতের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা রনেন্দ্র সরকার জানান। আর যার কারণে আগামী ২৪ ঘন্টায় উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে ।

এছাড়াও বজ্র বিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে বলে আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে। এদিকে উওরের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সেভাবে না হলেও দফায় দফায় বৃষ্টিতে জেরবার হবেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষজনও। বৃহস্পতিবারের পর শুক্রবারও বাংলার দুই ২৪ পরগণা সহ একাধিক জেলায় আকাশের মুখ ছিলো ভার।

সকাল থেকে সেভাবে সূর্য দেবের দেখা না মিললেও থেকে, থেকে ঝিরিঝিরি বৃষ্টিতে ভিজেছে পথঘাট। শুক্রবার সকালের দিকে বেশ কিছু এলাকায় ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাসের পাশাপাশি, রাতের দিকে বিক্ষিপ্তভাবে রয়েছে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।

তবে বৃষ্টির কারণে কমতে পারে তাপমাত্রাও। ফলে এখনই হিমের পরশ সেভাবে না লাগলেও রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বৃদ্ধি পাবে ঠান্ডা ভাব।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।