প্রতীকী ছবি

মুম্বই: বড়সড় মধুচক্রের পর্দাফাঁস করল পুলিশ। মুম্বইয়ের গুরগাঁও ইস্টের একটি ফাইভ স্টার হোটেলে হানা দিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে এই চক্রের পর্দাফাঁস করে পুলিশ। ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে এক অভিনেত্রী ও এক মডেলকে।

ওই অভিনেত্রী এবং মডেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, মেয়েদের পাচারকাজের সঙ্গে যুক্ত ছিল তাঁরা। পুলিশ ওই হোটেলে হানা দিয়ে দুটি মেয়েকে উদ্ধার করেছে। গ্রেফতার হওয়া অভিনেত্রীর নাম অমৃতা ধানোয়া (৩২)। অন্যদিকে যে মডেল গ্রেফতার হয়েছে তাঁর নাম রিচা সিং।

পুলিশ জানিয়েছে, সূত্র মারফত খবর পেয়েই তাঁরা হানা দিয়েছিল ওই হোটেলে। পুলিশ অফিসারেরা গ্রাহকদের সঙ্গে মিশে ওই হোটেলে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করেছিল। পরে পরিস্থিতি অনুকূল হতেই গ্রেফতার করা হয় ওই দুইজনকে।

পুলিশের ডিসিপি জানিয়েছেন, “আমরা দু’টি মেয়েকে উদ্ধার করেছি এবং দুইজনকে গ্রেফতার করেছি।” পুলিশ ওই উদ্ধার হওয়া মেয়েদের নাম সংবাদমাধ্যমকে জানায়নি। ৩৭০(৩) ধারা এবং ইন্ডিয়ান পেনাল কোডের ৩৪ নম্বর ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রতীকী ছবি

মাত্র দিন তিনেক আগে মধুচক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার কারণে বলিউডের এক প্রোডাকশন ম্যানেজারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জুহুর একটি চার তারা হোটেলে তল্লাশি চালিয়ে ওই প্রোডাকশন ম্যানেজারকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল এর আগেও ২৩ ডিসেম্বর নাগাদ এই একই হোটেল থেকে মধুচক্রের আসর থেকে তিনজন মহিলাকে উদ্ধার করা হয়েছিল। অর্থাৎ এই ধরণের ঘৃণ্য অপরাধ যে এই রাজ্যতে কতটা গভীরে প্রবেশ করেছে তা আবারও সামনে এল এই ঘটনার মধ্য দিয়ে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।