মুম্বইঃ   হাই-প্রোফাইল সেক্স র‍্যাকেটের পর্দাফাঁস করল মানিকপুর পুলিশ।  গোপন সূত্রে হানা দিয়ে সেক্স র‍্যাকেট থেকে তিনজন মহিলাকে উদ্ধার করল পুলিশ।  একই সঙ্গে বেশ কয়েকজন মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে যারা গোপনে সেক্স র‍্যাকেটটি চালাচ্ছিল বলে জানা গিয়েছে।  অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন আগে পুলিশের কাছে খবর আসে যে ভাসি রেলওয়ে স্টেশনের কাছে একটি ফ্ল্যাটে সেক্স-র‍্যাকেট চলছে গোপনে।  এরপরেই বুধবার গোপনে ওই ফ্ল্যাটে হানা দেয় পুলিশ।  ঘরে ঢুকেই চমকে যাবেন পুলিশ আধিকারিকরা।  দেখা যায়, ১৬ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে যুবতিদের দেহ ব্যবসার কাজে লাগানো হচ্ছে।  পুলিশ সূত্রে খবর, সেক্স র‍্যাকেট থেকে উদ্ধার হয় এক যুবতি সদ্য ১০ ক্লাস পাস করেছে বলে জানা গিয়েছে।  একজন মহিলা বিবাহিত বলেও জানা গিয়েছে।

এক একজন ক্লায়েন্টদের কাছ থেকে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হত বলে জানা গিয়েছে।   এমনকি, স্কুল গার্ল কিংবা বিবাহিত মহিলাদের ক্ষেত্রে টাকার অঙ্কটা আরও বেশি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.