নয়াদিল্লি: করোনা ঠেকাতে মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকেই জারি হতে চলেছে দেশজুড়ে লকডাউন। খবর শোনার পরেই আতঙ্কে ভুগছে সাধারণ মানুষ। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নিজে টুইট করে জানিয়েছেন, আতঙ্কিত হওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। এই ২১ দিনের লকডাউনে সরবরাহ থাকবে দুধ, মুদিদ্রব্য, এটিএম, চিকিৎসা পরিষেবা সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় পরিষেবার।

মঙ্গলবার দেশবাসীর উদ্দেশ্যে মোদী বলেন, ২১ দিন দেশজুড়ে লকডাউন জারি থাকবে। তিনি বলেছেন, ‘বাড়ির বাইরে লক্ষণরেখা টেনে দিন।’ দেশের প্রত্যেকটা গ্রাম, প্রত্যেকটা গলিতে জারি থাকবে লকডাউন। সতর্ক করে তিনি বলেন, অনেক উন্নত দেশও এই ভাইরাসের কাছে হার মেনেছে। অনেক প্রস্তুতি নিয়েও একে থামানো সম্ভব হয়নি। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলি এই সময়ে ব্যাহত হবে না।

সরকারি বক্তব্য অনুসারে লকডাউনেও কোন কোন পরিষেবা মিলবে একনজরে দেখে নেওয়া যাক-

দোকান: মুদিখানা, ফলের দোকান, দুধ, ডেয়ারি, মাছ এবং মাংস ও পশুখাদ্যের দোকান খোলা থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

অর্থনৈতিক পরিষেবা: খোলা থাকবে ব্যাঙ্ক, ইন্সরেন্স অফিস ও এটিএম।

সংবাদমাধ্যম: গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ থাকবে তৎপর। চলবে প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া।

কমিউনিকেশন: টেলিকমিউনিকেশন, নেট পরিষেবা, ব্রডকাস্টিং, কেবল পরিষেবা চালু থাকবে বলে জানানো হয়েছে। আইটি সেক্টরে ওয়ার্ক ফ্রম হোম গ্রহণযোগ্য করা হয়েছে।

হোম ডেলিভারি: নানান প্রয়োজনীয় দ্রব্য, যেমন খাবার, ওষুধপত্র ইত্যাদির ক্ষেত্রে হোম ডেলিভারি চালু থাকবে।

এছাড়া পেট্রোল পাম্প, এলপিজি সরবরাহ চালু থাকবে বলে জানানো হয়েছে। এর পাশাপাশি নানান প্রাইভেট নিরাপত্তারক্ষীদের এজেন্সিও চালু থাকবে বলে জানানো হয়েছে।