কলকাতা : শীতের মরসুমে এমন অনেক কিছুই পাওয়া যায় যা শরীরকে সহজেই সুস্থ রাখতে পারে। তবে শীতকাল ছাড়াও এমন অনেক ফল আছে যারা পুুুষ্টিগুণে ভরপুর এবং বারো মাসই পাওয়া যায় বাজারে। আর এই তালিকা সবার প্রথমে যে ফলের নাম আসে তা হলো পেঁপে। কাঁচা অবস্থায় সবজি এবং পাকা অবস্থায় ফল হিসেবে এটা খুবই উপকারী একটা খাবার।

নিয়মিত পাঁকা পেঁপে খেলে স্বাস্থ্যসম্মত যে লাভ হয়, তা অনেকের অজানা। আসুন জেনে নেওয়া যাক প্রতিদিন কেন পাঁকা পেঁপে খাওয়া উচিৎ ও কী কী রোগ থেকে এটি শরীরকে দূরে রাখে।

১. ত্বকের সুরক্ষায় :- পাকা পেঁপে ত্বকের জন্য খুবই উপকারী একটি ফল। পেঁপেতে থাকা পেপাইন ত্বকের ক্ষতি রোধ করতে এবং প্রদাহ জনিত জ্বালা কমাতে সহায়তা করে। এছাড়াও পেঁপের মধ্যে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের কালো ছোপ দূর করে, ব্রণের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে এবং ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া ভাব নিয়ন্ত্রণে রাখে। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে নিয়মিত পাঁকা পেঁপে খাওয়ার পাশাপাশি এটি মুখে ফেসমাক্স হিসেবেও ব্যবহার করা যেতে পারে।

২. হজমের সমস্যা সমাধাণ :- পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর এনজাইম। যা আপনার হজমের সমস্যা এবং স্বাস্থ্যের জন্য ভীষন উপকারী। গবেষকদের মতে পেঁপে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা যেমন দূর হয় তেমনই এটি আপনার খিদেকে বাড়িয়ে তুলতেও সাহায্য করে।

৩. প্রদাহ হ্রাস করতে সাহায্য করে :- দীর্ঘস্থায়ী কোনও শারীরিক আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। ভবিষ্যতে বড় কোনও বিপদ ডেকে আনতে পারে। তবে প্রতিদিনের ডায়েটে কয়েক টুকরো পাঁকা পেঁপের উপস্থিতি আপনার এই সমস্যাকে অনেকটা কমিয়ে দেবে।

৪. হার্ট ভালো রাখতে নিয়মিত পেঁপে খান :- হার্টের অসুখ থেকে আপনাকে দূরে রাখতে এই ফলের জুড়ি মেলা ভার৷ নিয়মিত পাঁকা পেঁপে খেলে রক্তচাপ কমে, রক্তনালিতে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল জমতে বাধা দেয়। তাই হৃদস্বাস্থ্যের সুরক্ষায় এবং উচ্চরক্তচাপ এড়াতে পেঁপে খেতে পারেন নিয়ম করে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।