ভোপাল: মহিলাদের নিয়ে অবমাননাকর ও অসম্মানজনক মন্তব্যের ধারা অব্যাহত৷ বিজেপি ও কংগ্রেস দুই শিবিরের নেতাদের বিরুদ্ধে উঠছে এই অভিযোগ৷ সেই তালিকায় নয়া সংযোজন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস মন্ত্রী সজ্জন সিং বর্মা৷ তিনি নিশানা করলেন বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনীকে৷ জানান, উনি তো নাচ দেখিয়ে ভোট চান বিজেপির জন্য৷

সক্রিয় রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর আসার কথা ঘোষণার পরই তাঁর মুখশ্রী ও ব্যক্তিত্ব নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক বাঁধান বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়৷ তাঁর মন্তব্যে লিঙ্গ বৈষম্যের অভিযোগ করেন বিরোধীরা৷ তার পরিপ্রেক্ষিতে হেমা মালিনীকে নিশানা করেন মধ্যপ্রদেশের পরিবেশমন্ত্রী সজ্জন সিং৷ জানান, বিজেপিতে এখন কোনও আকর্ষণীয় মুখ নেই৷ যারা আছে তাদের তারিফও আর শোনা যায় না৷ ভালো দেখতে একজনই আছেন৷ তিনি হলেন হেমা মালিনী৷ ভোটারদের মন পেতে বিজেপি তাঁকে শাস্ত্রীয় নৃত্যের অনুষ্ঠান করতে বলে৷ তাই হেমা মালিনী নাচ দেখিয়ে ভোটারদের মন জয়ের চেষ্টা করেন৷

হেমা মালিনীকে নিয়ে এমন মন্তব্য করার পরেও সেই সজ্জন সিংই বিজয়বর্গীয়’র মন্তব্যের সমালোচনা করেন৷ জানান, প্রিয়াঙ্কাকে দেখতে সুন্দর৷ ভগবান তাঁকে সেই রূপ দিয়েছে৷ প্রিয়াঙ্কার এতে কোনও হাত নেই৷ কেউ সৌন্দর্য্যের প্রশংসা করতেই পারে৷ কিন্তু প্রিয়াঙ্কার ক্ষেত্রে যে শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে তা অসম্মানজনক৷ এত বিজয়বর্গীয়র মান ক্ষুন্ন হয়েছে৷ দলকেও ছোট করেছেন৷

শনিবার রাজধানী দিল্লিতে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেছিলেন, ‘‘কংগ্রেসের কাছে নেতার অভাব৷ তাই ভোটে জিততে চকোলেট ব্যক্তিত্ব প্রিয়াঙ্কাকে সামনে আনা হচ্ছে৷ পরিষ্কার মোদীজির সঙ্গে লড়াইয়ে ওদের আত্মবিশ্বাস তলানিতে৷’’ পুরো বিষয়টিকে হাত শিবিরের গিমিকের রাজনীতি বলে সমালোচনায় সরব হন বিজেপির এই প্রথম সারির নেতা৷

আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও দলের দায়িত্ব নেননি৷ তার আগে থেকেই গেরুয়া শিবিরের নিশানায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ সেই সঙ্গেই এই সিদ্ধান্তের জন্য তারা কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না কংগ্রেস সভাপতিকে৷ তবে এটা ঠিক রাজনীতিতে প্রিয়াঙ্কার আগমনে উজ্জীবিত কংগ্রেস নেতা কর্মীরা৷ তাঁর মধ্যে অনেকেই ইন্দিরা গান্ধীর মিল খুঁজে পান৷ তাই মুখে না বললেও প্রিয়াঙ্কার রাজনীতিতে আসায় কিছুটা হলেও চাপে গেরুয়া শিবির৷ লোকসভার আগে প্রিয়াঙ্কা ক্যারিশ্মা থামাতে তাই এমন প্রচার করছেন পদ্ম শিবিরের নেতারা৷ মত রাজনৈতিক মহলের৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।