কলকাতা: চলতি বছরে বর্ষা বেশ খামখেয়ালি দক্ষিণবঙ্গে। আবহাওয়ার ওঠাপরায় বৃষ্টির খামতি রেকর্ড ছুঁয়ে গেছে। তবে অগাস্টের শুরুতে বেশ কিছুটা বৃষ্টি হলেও যেমন তা পর্যাপ্ত নয় তেমনি কমেনি অস্বস্তি। মঙ্গলবারই আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছিল আগামী ২৪ ঘণ্টায় বাড়বে। ঠিক সেই কথাই আবারও জানান গেল বৃহস্পতিবার সকালে। কিছুটা রোদের মাঝে আকাশ কালো করে আছে এদিন সকাল থেকেই।

হাওয়া অফিস তাঁদের পূর্বাভাসে জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন আগেই থেকেই উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের উপরে নিম্নচাপ তৈরি হওয়ায় বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। বাংলা-ওডিশা উপকূলে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। পাশাপাশি বুধবার থেকেই বঙ্গোপসাগরের উপরে থাকা নিম্নচাপটি সক্রিয় হয়ে উঠেছে। বৃহস্পতিবার ভারী বৃষ্টি চলবে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায়।

কলকাতার বেশ কিছু অংশে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের যে সব জেলায় মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে তা হল- পূর্ব মেদিনীপুর, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা ও হাওড়া। এছাড়াও পশ্চিমের বেশ কিছু জেলাতেও ভারি বৃষ্টি হতে পারে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

বিশেষ করে দক্ষিণবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা ভারী বৃষ্টি হবে। ভিজবে কলকাতাও। তবে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেশি হওয়ায় বজায় থাকবে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি। তাই বৃষ্টির পরিমাণ বাড়লেও স্বস্তি স্থায়ী হবে না দীর্ঘক্ষণ। অন্যদিকে, এখনই উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছিল রিজিওন্যাল মিটিরিওলজিক্যাল দফতর। তবে পশ্চিমবঙ্গ-ওডিশার উপকূলে ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ায় আগামি ৪৮ ঘণ্টা উত্তরবঙ্গে ভারি বর্ষণের কথা জানিয়েছে।

চলতি বছরের বর্ষায় যে ঘাটতি তৈরি হয়েছে তা ভাদ্র মাসে কিছুটা হলেও মিটবে বলে আশা প্রকাশ করেছে আবহাওয়া দফতর। রবিবার থেকেই কলকাতার আকাশ ছিল মেঘলা। ভারি বৃষ্টি না হলেও দফায় দফায় হালকা বৃষ্টিতে ভিজেছে শহরবাসী। ফের নতুন করে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা শোনাল আবহাওয়া দফতর।