কলকাতাঃ  আগামী ২৪ ঘন্টায় ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিল আলিপুর হাওয়া অফিস। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলাতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। পাশাপাশি সোম থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারী বৃষ্টির সর্তকতা উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও। একদিকে উপকূলে ফুঁসছে একটি নিম্নচাপ।

অন্যদিকে, রয়েছে একটি ঘুর্নাবর্তও। আগামী তিন দিন নিম্নচাপ পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম অভিমুখে এগোবে। আরো শক্তি সঞ্চয় করবে। যদিও ধীরে ধীরে সেটি বঙ্গোপসাগরের উপর দিয়েই ওডিশার দিকে সরে যাবে। যার ফলে নিম্নচাপের প্রভাব কিছুটা কম পড়বে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। এর কারণে ধীরে ধীরে বৃষ্টির পরিমাণও কমতে শুরু করবে। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

অন্যদিকে, ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কায় ইতিমধ্যে কমলা সর্তকতা জারি করা হয়েছে। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলার ক্ষেত্রে এই অ্যালার্ট দেওয়া হয়েছে। তবে এই নিম্নচাপের কারণে সমুদ্র উত্তাল হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এমনটাই পূর্বাভাসে জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর।

সেই কারণে আগামী কয়েকদিন মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যারা রয়েছেন তাঁদের নিরাপদ স্থানে ফিরে আসার কথা বলা হয়েছে। একদিকে নিম্নচাপ অন্যদিকে ঘুর্নাবর্ত। এর প্রভাবে ৪৫ থেকে ৫৫ কিলোমিটার বেগে উপকূলে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলে পূর্বাভাস।

এক নজরে ভারী বৃষ্টিপাত হবে- পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া ও পুরুলিয়ায়। ভারী বর্ষণের সর্তকতা রয়েছে আরো চার জেলায়। বীরভূম, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান ও মুর্শিদাবাদে। মাঝারি থেকে ভারি বর্ষণের সর্তকতা কলকাতাসহ বাকি জেলায়।

আগামিকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত হলুদ সর্তকতা রয়েছে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম জেলায়। বুধবার প্রবল বর্ষণের কমলা সর্তকতা রয়েছে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে। অতি ভারী বর্ষণের কমলা সর্তকতা জলপাইগুড়ি ও কালিম্পংয়ে। ভারী বর্ষণের কমলা সর্তকতা মালদহ, উত্তর দিনাজপুর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।