স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আগামী ৫ জুলাই পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির জেরে দার্জিলিং, কালিম্পং এলাকায় ধস নামতে পারে বলে জানানো হয়েছে হাওয়া অফিসের তরফে। অন্য়দিকে, উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।

৫ জুলাই পর্যন্ত দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। মালদা, দুই দিনাজপুরেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। এর জেরে এবার হতে পারে বন্যা, ভূমিধ্বসের আশঙ্কাও দেখা দিচ্ছে উত্তরের জেলাগুলিতে। এখনও পর্যন্ত কোচবিহারে ৬৬ মিলিমিটার, জলপাইগুড়িতে ৪৫.৬ মিলিমিটার, শিলিগুড়িতে ১৩৯.৯ মিলিমিটার, কালিম্পঙে ১৭.০ মিলিমিটার ও দার্জিলিঙে ৯.০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এই বৃষ্টির পরিমান বাড়তে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

এদিকে দক্ষিণ বৃষ্টিহিন। বাড়ছে গরম , সঙ্গী অতিরিক্ত আর্দ্রতা। একই অবস্থা কলকাতার। যা সারা গ্রীষ্মে হয়নি কলকাতায় বর্ষাকালে তা হচ্ছে। তাপমাত্রা বেড়ে হাঁসফাঁস অবস্থা শহরের। সঙ্গে এখন বৃষ্টি নেই। তাই পরিস্থিতি আরও অস্বস্তিকর। স্বাভাবিকের অনেক উপরে রয়েছে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আবহাওয়াকে অস্বস্তিকর করছে অতিরিক্ত আর্দ্রতা। বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। এই তাপমাত্রা বৃষ্টি না হলে বেড়ে আজ মঙ্গলবার ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছে যেতে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান যথারীতি অনেক বেশি। সর্বোচ্চ ৮৯ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৬১ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। দমদম থেকে সল্টলেক, কোথাও বৃষ্টি হয়নি।

বুধবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৫৮ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ৫.৮ মিলিমিটার। দমদমে ২.৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয় ও সল্টলেকে বৃষ্টি হয়নি। মঙ্গলবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সোমবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমান যথারীতি অনেক বেশি ছিল। সর্বোচ্চ ৯৫ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৭৯ শতাংশ। বৃষ্টি হয় ০.৯ মিলিমিটার। দমদমে ৪ ও সল্টলেকে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। রবিবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। শনিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৩৩.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এই ডিগ্রি বেশি। শনিবার বৃষ্টি হয় ৫৮.৮ মিলিমিটার, ওইদিন রাত সাড়ে আটটা থেকে রবিবার সকাল ছ’টা পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছিল ৫৬.১ মিলিমিটার। আর্দ্রতার পরিমান ছিল সর্বোচ্চ ৯৭ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৬৮ শতাংশ। দমদমে রবিবার ৪৩ মিলিমিটার, সল্টলেকে ৪২.২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ