স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: সাত দফা দাবি নিয়ে আন্দোলনে নামল জেলার সাতটি ব্লকের স্বাস্থ্য কর্মীরা৷ ওয়েস্ট বেঙ্গল মাল্টিপারপাস ফিমেল হেলথ্ ওয়ার্কার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে কয়েকশো মহিলা স্বাস্থ্য কর্মী নিজেদের প্রাপ্য দাবি নিয়ে এই আন্দোলন করে৷

তাঁরা শহরের বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক দফতরে হাজির হয়৷ জেলা শাসক ও মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের হাতে এদিন তাঁরা স্মারকলিপিও তুলে দেয়।

আরও পড়ুন: ১৮.৫ লক্ষ টন মৎস্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা পূরণের পথে রাজ্য

তাঁদের দাবি, ক্যাডার প্রমোশন, স্কেলের আপগ্রেডেশন সংক্রান্ত বিষয়ে সরকার ভাবছে না৷ সেই বিষয়টি দ্রুত পূরণ করার দাবি জানান তাঁরা৷ কমিউনিটির কাজের কোন অভিজ্ঞতা না থাকা সত্বেও ইনডোরের জি এন এম নার্সদের ছয় মাসের ব্রিজ কোর্স ট্রেনিং নিয়ে নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কিন্তু তাঁদের দীর্ঘ ৩০ থেকে ৩৫ বছরের কমিউনিটির অভিজ্ঞতা থাকা সত্যেও ট্রেনিং দিয়ে ওই পোষ্টে নিয়োগ করা হচ্ছে না। তাঁরা চায় তাঁদের ট্রেনিং দিয়ে নিয়োগ করা হোক৷ পাশাপাশি হাইয়ার এডুকেশনের ব্যবস্থা দাবি জানানো সহ মোট সাত দফা দাবি জানানো হয়। জেলা শাসক ও মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের হাতে এদিন তাঁরা স্মারকলিপিও তুলে দেয়।

আরও পড়ুন: পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনেও সংঘর্ষ অব্যাহত

তাঁরা জানায়, দ্রুত দাবিগুলি পূরণ না করা হলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য থাকবে আন্দোলনকারিরা৷ এদিন জেলার সাতটি ব্লকের কয়েকশো স্বাস্থ্য কর্মী উপস্থিত ছিলেন। মোট স্বাস্থ্য কর্মী রয়েছে প্রায় চার শতাধিক।

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ জগন্নাথ সরকার জানান, জেলার সাতটি ব্লকের কর্মীরা এসেছিলেন তাদের সাত দফা নিয়ে। তাদের দাবিগুলি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হবে।

আরও পড়ুন: অধীরের গড়ে রাহুলের দলকে টেক্কা দিল বিজেপি