নয়াদিল্লি : সোমবার দেশ জুড়ে নয়া নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ৫ই অগাষ্ট থেকে সেই নতুন নিয়ম বলবৎ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নয়া নির্দেশিকা জানাচ্ছে ৫ তারিখ থেকে দেশ জুড়ে খুলে দেওয়া হচ্ছে জিম ও যোগা ইন্সিটিটিউটগুলি।

তবে কনটেনমেন্টচ জোনের বাইরের জিম ও যোগ সংস্থাগুলিই খোলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যদিও জানানো হয়েছে ৬৫ বছরের ওপরে ব্যক্তিরা, কঠিন রোগে আক্রান্ত বা কো-মর্বিডিটিতে আক্রান্ত ব্যক্তি, গর্ভবতী মহিলা ও ১০ বছরের নীচে শিশুরা বদ্ধ ঘরে জিম করতে পারবে না। সেক্ষেত্রে সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে।

যোগ সংস্থা ও জিমগুলি তাদের সদস্য, গেস্ট ও কর্মীদের যাওয়া আসার ওপরেও নজর রাখবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা বা মাস্ক পরার মতো বেশ কিছু নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া গাইড লাইন বলছে ১. প্রত্যেকের সঙ্গে প্রত্যেকের অন্তত ৬ফুট দূরত্ব থাকতে হবে। ২. মাস্ক বা ফেস কভার ব্যবহার অবশ্যই করতে হবে। সেক্ষেত্রে যোগ ব্যায়াম বা জিম করার সময় এন ৯৫ পরা চলবে না। এতে শ্বাস প্রশ্বাস নিতে অসুবিধা হতে পারে। সুতির মাস্ক বা পাতলা কাপড় জড়িয়ে নেওয়া বাঞ্ছনীয়।

৩. ৪০-৬০ সেকেন্ড ধরে বারবার হাত ধুতে হবে। ব্যবহার করতে হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। ৪. হাঁচি বা কাশির সময় টিস্যু বা কাপড় নাকের ও মুখের সামনে ধরতে হবে। তাকে সঠিক জায়গায় ফেলতে হবে।

প্রত্যেক সদস্যের ফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ রাখা বাধ্যতামূলক। কোনও ধরণের শারীরিক সমস্যায় রাজ্য বা জেলা হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করা দরকার। প্রকাশ্যে থুথু ফেলা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

এদিকে, দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। শেষ ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হলেন, ৫২ হাজার ৯৭২ জন। নতুন মৃত্যু হয়েছে আরও ৭৭১ জনের।

নতুন করে সংক্রমণের জেরে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮ লক্ষ ৩ হাজার ৬৯৬ জন। এর মধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৫ লক্ষ ৭৯ হাজার ৩৫৭ টি। দেশজুড়ে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১১ লক্ষ ৮৬ হাজার ২০৩ টি। দেশজুড়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ৩৮ হাজার ১৩৫ জন।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও