কলকাতাঃ  ক্ষমতায় আসার পরেই রাজ্যে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মতো জেলার একাধিক জায়গায় উন্নতমানের হাসপাতাল তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জায়গাতে তৈরিও হয়েছে হাসপাতাল। তবে এখানেই শেষ নয়। রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে একাধিক উদ্যোগ রাজ্যের।

আর সেজন্যে রাজ্যের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিকে হেলথ অ্যান্ড ওয়েলনেস সেন্টারে উন্নত করার সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আর এজন্যে ৫ হাজার ২৫০ জন স্টাফ নার্স নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর দফতর। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য।

প্রসঙ্গত, বুধবার বৈঠকে বসে রাজ্য মন্ত্রিসভা। সেখানেই এবিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। রাজ্যে মোট ১০ হাজার ৩৫৭টি উপস্বাস্থ্যকেন্দ্র রয়েছে। স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জানান, “উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিতে পরিষেবার মান উন্নয়নের জন্য প্রচুর সংখ্যক প্রশিক্ষিত নার্সের প্রয়োজন হবে। এজন্য বর্তমানে চাকুরিরত নার্সদের নতুন করে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। তা সত্ত্বেও যে ঘাটতি থাকবে তা পূরণ করতে নতুন নার্স নিয়োগের সিদ্ধান্ত।”

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.