বার্মিংহ্যাম: বিশ্বকাপ পরবর্তী অ্যাশেজে দলের মেন্টর হিসেবে টিম পেইনদের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া দলের ড্রেসিংরুম শেয়ার করছেন স্টিভ ওয়া। ডন ব্র্যাডম্যানের (১৯) পর ঐতিহ্যের অ্যাশেজে সর্বাধিক শতরানের নিরিখে অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এতদিন দ্বিতীয়স্থানে ছিলেন তিনিই। তবে রবিবার এজবাস্টনে প্রাক্তন বিশ্বজয়ী অধিনায়কের সেই রেকর্ডে ভাগ বসালেন দেশের আরেক প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ।

অনভিপ্রেত ঘটনার জেরে নেতৃত্বের চাকরি খোয়াতে তো হয়েছিলোই, এমনকি একবছর ক্রিকেট থেকে বানপ্রস্থেও যেতে হয়েছিল স্মিথকে। কিন্তু ব্যাটে যে তাঁর শান এতটুকু কমেনি পাঁচদিনের ক্রিকেটে ফিরেই বুঝিয়ে দিয়েছেন স্মিথ। জোড়া শতরানে প্রথম অ্যাশেজ টেস্টে দলকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন সুবিধাজনক জায়গায়। ডন ব্র্যাডম্যানের পর দ্বিতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান টেস্ট ক্রিকেটে পূর্ণ করেছেন ২৫টি শতরান। জোড়া ইনিংসে তাঁর মহাকাব্যিক শতরান দেখে ক্রিকেট অনুরাগীরা বলছেন আধুনিক টেস্ট ক্রিকেটে স্মিথই সেরা।

আরও পড়ুন: নেতৃত্ব নিয়ে ভাবছেন না, এজবাস্টনে জোড়া সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে জানালেন স্মিথ

মেন্টর হিসেবে দলের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে স্মিথকে খুব কাছ থেকে দেখছেন প্রাক্তন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক। তাই অ্যাশেজ শতরানের নিরিখে তাঁকে স্পর্শ করার পর স্মিথকে দরাজ সার্টিফিকেট দিলেন স্টিভ ওয়া। চ্যানেল ৯-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়া জানান, ‘স্টিভ স্মিথের মত ক্রিকেটার আমি আগে দেখিনি। কোনও ম্যাচের আগে ও যেভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে তা অভূতপূর্ব। বিশ্বক্রিকেটে বাকি যে কোনও ব্যাটসম্যানের তুলনায় ও বেশি বল হিট করে। স্মিথ যখন ব্যাট করতে নামে ওর মধ্যে এক অদ্ভূত প্রশান্তি বিরাজ করে। ও জানে বিপক্ষ ওকে আউট করার করার জন্য কী পরিকল্পনা গ্রহন করছে এবং তাঁর সমাধান তৈরি করেই ব্যাট হাতে মাঠে নামে স্মিথ।’

আরও পড়ুন: মাঠের লড়াইয়ে বিরাটকে পিছনে ফেললেন রোহিত

এখানেই থেমে থাকেননি ওয়া। স্মিথ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিশ্বজয়ী অধিনায়ক আরও জানান, ‘ব্যাটসম্যান হিসেবে স্মিথের মধ্যে রানের খিদে সর্বাধিক। ওর টেকনিক অসামান্য। ও জানে কিভাবে রান করতে হয়। প্রত্যকটা ডেলিভারিকে ও কম্পিউটারের মতো বিশ্লেষণ করে। স্মিথ ওর নিজের খেলা সম্পর্কে অনেক বেশি সচেতন। স্মিথ সম্পর্কে সবচেয়ে ভালো বিষয়টি হল অন্যেরা যদি ওকে খেয়াল করে, তাহলে বুঝবে নিজের খেলার প্রতি কারও আত্মবিশ্বাস থাকে তাহলে কোন উচ্চতায় সে নিজেকে মেলে ধরতে পারে।’

আর দশম অ্যাশেজ সেঞ্চুরি পূর্ণ করে কিংবদন্তি স্টিভ ওয়াকে ছুঁয়ে স্মিথ জানাচ্ছেন, ‘ক্রিকেট কেরিয়ারে একই ম্যাচে জোড়া সেঞ্চুরি করার অনন্য নজির কেরিয়ারে এই প্রথম। আমার ইনিংস দলকে মজবুত জায়গায় দাঁড় করিয়েছে, তাই এজবাস্টনের জোড়া শতরান ভীষণভাবে স্পেশ্যাল।’