দেরাদুন: পেশায় খুনি। সেই সঙ্গে উপরি হিসেবে লুঠ-পাট এবং ডাকাতিও করে থাকে। কিন্তু কোনও পাপ হয় না। কারণ অপরাধারে আগে সে কালী মায়ের মন্ত্র পাঠ করে যে!

এমনই এক সিরিয়াল কিলারকে পাকরাও করেছে পুলিশ। জেরায় নিজের অপরাধের কথা কবুলও করে নিয়েছে সে। এর মধ্যে চাঞ্চল্যকর বিষয় হচ্ছে, অপরাধী কোনও পাপ করেছে বলে মনে করে না।

সোমবার রাতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে হরিয়ানা রাজ্য পুলিশ। দীর্ঘ জেরার পড়ে মঙ্গলবার নিজের অপরাধের কথা সে কবুল করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ধৃত ব্যক্তির নাম জাগতার সিনহা। জেরায় সে জানিয়েছে যে মোট সাতটা খুন করেছে সে। একই সঙ্গে প্রায় ৬০০ ডাকাতি করেছে। সব অপরাধের আগে ১০৮ বার মা কালীর মন্ত্র পাঠ করে নিত জাগতার। তার মতে, “মানুষ খুন করা মহাপাপ। সেই কারণে খুন করার আগে আমি কালী মায়ের মন্ত্র ১০৮ বার জপ করে নিই।যাতে আমার গায়ে কোনও পাপ না লাগে।”

হরিয়ানা পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের ডিসিপি লোকেন্দ্র সিং বলেছেন, “জেরায় অপরাধের কথা কবুল করেছে ধৃত জাগতার। সাত তেকে আটটা খুন এবং ৫০ থেকে ৬০০ টা ডাকাতি করেছে বলে জানিয়েছে সে।” সাংবাদিকদের সামনেও নিজের অপরাধ স্বীকার করে নিয়েছে জাগতার। ফরিদাবাদ, পালওয়াল, কুরুক্ষেত্র এবং পঞ্জাবের বিভিন্ন জায়গায় জাগতার মানুষ খুন করেছে বলে সে নিজেই জেরায় জানিয়েছে।