নয়াদিল্লি: নতুন অফারের লোভে ব্যাঙ্কে নতুন অ্যাকাউন্টগুলি খোলা হয়, তবে প্রায়শই পুরানো অ্যাকাউন্টটির কথা ভুলে যায়। বহুদিন কোনো অর্থ লেনদেন না হওয়ায় ডর্ম্যাট অ্যাকাউন্ট-এ পরিণত হয়। আপনার যদি একাধিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকে এবং সেগুলো ব্যবহার না করায় যদি নিষ্ক্রিয় হয়ে যায় তবে সেগুলি বন্ধ করুন। অন্যথায়, আগামী সময়ে বড় কোনো ক্ষতি হতে পারে।

১. যদি আপনার অ্যাকাউন্টে তিন মাস ধরে কোনও বেতন ক্রেডিট না থাকে তবে সেই অ্যাকাউন্টটি সঞ্চয়ী অ্যাকাউন্টে পরিণত হয়। সঞ্চয়ী অ্যাকাউন্টে পরিবর্তন হওয়ার পর নতুন নিয়ম লাঘু হয়। এমন পরিস্থিতিতে সঞ্চয় অ্যাকাউন্টে আপনাকে ন্যূনতম ব্যালেন্স বজায় রাখতে হবে।যদি আপনি যদি এটি বজায় না রাখেন তবে আপনাকে জরিমানা দিতে হতে পারে এবং আপনার অ্যাকাউন্টে জমা থাকা অর্থ থেকে ব্যাঙ্ক টাকা কেটে নিতে পারে।

২. অনেক ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট থাকার কারণে আপনাকে সমস্ত অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স বজায় রাখতে হবে। একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ বজায় রাখতে হবে। অর্থাৎ, একাধিক অ্যাকাউন্ট থাকা মানে, আপনার বড় পরিমাণ অর্থ ব্যাঙ্কগুলিতে আটকে থাকবে। আপনি কেবল মাত্র ৪ শতাংশ হরে সুদ পাবেন। পরিবর্তে আপনি অন্য জায়গায় অর্থ বিনিয়োগ করলে বড় অর্থ রিটার্ন পেতে পারেন।

৩. অনেক ব্যাঙ্কে সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে পরিষেবার কোনও সুযোগ না নিয়েই আপনাকে মোটা অঙ্কের অর্থ প্রদান করেন।

৪.একাধিক নিষ্ক্রিয় ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট আপনার ক্রেডিট স্কোরকেও প্রভাবিত করে। এটির খারাপ প্রভাব রয়েছে। আপনার অ্যাকাউন্টে কোনও ন্যূনতম ব্যালেন্স বজায় না থাকলে ক্রেডিট স্কোরটি খারাপ হয়ে যায়। এরফলে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হয়।

এমন পরিস্থিতিতে আপনি যদি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করতে চান তবে কতগুলি বিষয়ের উপর জোর দিতে হবে। প্রথমত, আপনাকে ডি-লিঙ্ক ফর্মটি পূরণ করতে হতে পারে। একাউন্ট ক্লোজের ফর্ম ব্যাঙ্ক শাখায় উপলব্ধ। এই ফর্মটিতে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করার কারণ আপনাকে ব্যাখ্যা করতে হবে। যদি আপনার অ্যাকাউন্টটি একটি জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট হয়, তবে ফর্মের জন্য সমস্ত অ্যাকাউন্টধারীদের স্বাক্ষর প্রয়োজন।

আপনাকে একটি দ্বিতীয় ফর্মও পূরণ করতে হবে। এতে বন্ধ অ্যাকাউন্টের বাকী অর্থ যে অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করতে চান সেই তথ্য আপনাকে দিতে হবে। অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে, আপনাকে নিজে ব্যাঙ্ক শাখায় যেতে হবে। অ্যাকাউন্ট খোলার ১৪ দিনের মধ্যে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করলে কোন প্রকারের চার্জ কাটা হয় না। আপনি যদি অ্যাকাউন্ট খোলার ১৪ দিন পরে এবং এক বছর শেষ হওয়ার আগে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেন তবে আপনাকে অ্যাকাউন্ট বন্ধের চার্জ দিতে হবে। সাধারণত, এক বছরের বেশি পুরনো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করলে কোনও চার্জ দিতে হয় না।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.