মুম্বই: নতুন ওয়েব সিরিজ তৈরি করে বিপাকে পরেছেন বিখ্যাত প্রযোজক একতা কাপুর। ট্রিপল এক্স সিশন ২ (“Triple X”)-তে অশ্লীলতার ছড়ানোর অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং সঠিকভাবে জাতীয় প্রতীককে ব্যবহার না করারও অভিযোগ উঠেছে।

উপরিউক্ত সকল অভিযোগের ভিত্তিতে একতা কাপুর সহ আরও দু’জনের বিরুদ্ধে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে এফআইআর দায়ের হয়েছে, এমনটাই জানা গিয়েছে পুলিশ সূত্রে।

তবে এমন অভিযোগ ওঠার পর থেকেই একাধিক নানা কুৎসিত মন্তব্য এমনকি ধর্ষণের হুমকি পেয়েছেন তিনি। শনিবারের এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার প্রযোজক জানিয়েছেন, যে দৃশ্য নিয়ে সমস্যা ছিল তা মুছে ফেলা হয়েছে তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের মধ্যমে শাসানো এবং ধর্ষণের হুমকি খারাপ মানসিকতার পরিচয় দেয়।

পুলিশ জানিয়েছে এফআইআরে স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে, ভারতীয় সেনার উর্দি চূড়ান্ত আপত্তিকরভাবে ব্যবহার করা হয়েছে। ওয়েব সিরিজে দেখা যায়, একটি অংশে এক সেনার স্ত্রী, সেনার অনুপস্থিতিতে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, শুধু তাই নয়, ছিঁড়ে ফেলেন সেনার উর্দিও।

একতা কাপুর জানিয়েছেন, “ভারতীয় সেনাদের অসন্মান করা উদ্দেশ্য নয়, তাঁরা প্রতি মুহূর্তে প্রাণপাত করছেন সীমান্তে। সে অংশ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে তা বাদ রাখা হয়েছে ওয়েব সিরিজ থেকে”।

একতার বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীকে অপমান করার অভিযোগ তুলে বিকাশ পাঠক নামে এক ব্যক্তি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এই বিকাশ পাঠক নিজেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘হিন্দুস্থানী ভাও’ বলে পরিচিতি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একতা কাপুর ও তাঁর মা শোভা কাপুরকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এই বিকাশ পাঠকের বিরুদ্ধেই। এরপরেই একতা প্রশ্ন তোলেন, “ওই ব্যক্তি নিজেকে সেরা দেশপ্রেমিক দাবি করেন এবং আমাকে ও আমার মা-কে গালিগালাজের সঙ্গে ধর্ষণের হুমকি দিতেও ছাড়েনি। তার অর্থ যৌনতা খারাপ আর ধর্ষণ ভালো”?

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ