স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বাংলায় বিজেপির উত্থান লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে স্পষ্ট। এমন সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন ‘ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে হিসাব নেব৷’ তার কিছুদিন পরেই সন্দেশখালিতে ঘটে গেল ভয়াবহ সন্ত্রাস। বিজেপির দুজন সদস্যকে তৃণমূল কর্মীরা খুন করেন বলে অভিযোগ। আরও তিনজন বিজেপি কর্মী এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ। তাঁদের গুলি করে খুন করা হয়েছে বলে বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

সবমিলিয়ে বাংলা এখন রাজনৈতিক সন্ত্রাসে ভরা বলে মনে করছেন অনেকে। যাতে রাজনৈতিক হানাহানি বাংলার মাটি স্পর্শ না করে, তার জন্য বিজেপির বিরুদ্ধে ভোট দিতে আবেদন করেছিলেন শঙ্খ ঘোষ, নবনীতা দেবসেন-সহ আরও অনেক বুদ্ধিজীবী।

আরও পড়ুন: পুলিশে নিয়ন্ত্রণ নেই মমতার, পদত্যাগ করা উচিত: মুকুল রায়

কিন্তু তাঁদের আবেদন সাড়া পড়েনি বিশেষ। বরং ভারতবর্ষ ব্যাপী বয়ে গিয়েছে গেরুয়া ঝড়। কারচুপি করে বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে বলে মনে করেছিলেন নবেলজয়ী অমর্ত সেন। ফলাফল ঘোষণার পরে তিনি এমন মন্তব্যই করেছেন।

সোমবার সন্দেশখালি প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপির দফতরে সাংবাদিক সম্মেলনে দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা বলেন– “শঙ্খ ঘোষ সম্মানীয় ব্যক্তি। কেন জানি না কোনও রাজনৈতিক কারণে রাস্তায় নেমে পড়েন। মাঝেমধ্যে একপেশে রাজনৈতিক বক্তব্য পেশ করেন। নবনীতা দেবসেন কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কুকথা শুনতে পাচ্ছেন না? শঙ্খ ঘোষকে জিজ্ঞাসা করছি উনি কি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কুকথা শুনতে পাচ্ছেন না? শঙ্খ ঘোষ মমতার কুকথার বিরুদ্ধে নীরব কেন?”

আরও পড়ুন: একাধিক দাবিতে নবান্নে ডেপুটেশন জমা গ্রুপ ডি চাকরিপ্রার্থীদের

তিনি আরও বলেন, “অমর্ত সেনের কাছেও একই ব্যাপার জানতে চাই। বুদ্ধিজীবীদের কি বুদ্ধি ভ্রষ্ট হয়েছে? নাকি তাঁরা ভয় পেয়েছেন? নাকি তাঁরা কিছু প্রত্যাশা করছেন? বাংলার মানুষ জানতে চাইছে এইসব বুদ্ধিজীবী এখন গর্তে ঢুকে আছেন কেন? আমি যাঁদের নাম বললাম তাঁরা নিজগুণে জনসমাজে প্রতিষ্ঠিত। কিন্তু যাঁদের নাম বললাম না, সবাইকেই বলতে চাইছি– আপনারা মমতার কুকথার বিরুদ্ধে কেন সরব হচ্ছেন না?”

রাহুল সিনহার এমন বক্তব্য ঘিরে ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে। এ ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চেয়ে kolkata 24×7.com-এর পক্ষ থেকে কবি শঙ্খ ঘোষকে ফোন করা হলে তিনি কোনও রকম সাড়া দেননি। নবনীতা দেবসেন বলেন– “এ ব্যাপারে আমার কোনও প্রতিক্রিয়া নেই”।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।