চণ্ডীগড়: তিন মাসে দু’বার গণধর্ষণের শিকার এক নাবালিকা। হতবাক করে দেওয়া এই ঘটনাই ঘটেছে হরিয়ানায়। এ বছরের শুরুতেই তাকে গণধর্ষণ করেছিল গ্রামের চার জন ব্যক্তি। পুলিশেও অভিযোগ জানানো হয়। কিন্তু প্রমাণের অভাবে খারিজ হয়ে যায় সেই অভিযোগ।

এই সপ্তাহে সেই চার অভিযুক্ত অপহরণ করে ফের গণধর্ষণ করে ১৭ বছরের ওই নাবালিকাকে। এই ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার পালয়ার জেলাতে। শুক্রবার নির্যাতিতাকে ফের গণধর্ষণের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

পালয়ারের পুলিশ সুপার নরেন্দ্র বিজার্নিয়া বলেছেন, ‘নাবালিকা অভিযোগে জানায়, গত ৪ ডিসেম্বর বাড়ি থেকে সে যখন বেরিয়ে ছিল তখন গ্রামের চার জন তাকে অপহরণ করে নির্জন স্থানে নিয়ে যায় ও গণধর্ষণ করে।’
পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়, অভিযুক্তদের মধ্যে একজন ৪৫ বছর বয়সী প্রোঢ়ও রয়েছেন।বাকি দু’জনের বয়স ৩০-এর উপর। এবং অপরজন কিশোর।

ওই নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতে চারজনের বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ। এসপি নরেন্দ্র বিজার্নিয়া আরও জানিয়েছেন, এ বছরের শুরুতে এই চার জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ করেছিল ওই কিশোরী। কিন্তু অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ প্রমাণ না থাকায় খারিজ হয়ে যায় সেই মামলা।

পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয় নতুন করে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। নির্যাতিতার বয়ানও নথিভুক্ত করে তাঁর মেডিক্যাল চেক আপ করানো হয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ