চণ্ডীগড়: প্রকাশিত হচ্ছে দুই রাজ্যের বিধানসভা ভোটের ফলাফল। রাজনেতিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হরিয়ানা। যদিও বেশিরভাগে বুথ ফেরত সমীক্ষাতেই বলা হয়েছে যে বিজেপি অনায়াসে জিতে যাবে এই রাজ্যে। তবে কোনও কোনও এক্সিট পোল বলছে, হরিয়ানায় কোনও দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না। ফলে জেজেপি-র হাতে থাকতে পারে তাস। হরিয়ানা মনোহর লাল খট্টর ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে পারবেন কিনা, সেটা সময়ই বলতে পারবে। তবে, গণনার শুরু থেকেই কংগ্রেসকে পিছনে ফেলে দেয় বিজেপি। যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই কাছাকাছি এসে যায় কংগ্রেস।

৯০ টি আসনে নির্বাচন হয়েছে হরিয়ানায়। ভোত পড়েছে ৬৮.৩১ শতাংশ। একদিকে রয়েছেন হরিবানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর, অন্যদিকে কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভুপিন্দর সিং হুডা ও জেজেপির দুষ্যন্ত চৌতালা।

India Today-র এক্সিট পোল বলছে, দুষ্যন্ত চৌতালা শুধু কিং মেকারই হবেন না। মুখ্যমন্ত্রীও হয়ে যেতে পারেন। অর্থাৎ কুমারস্বামীর মত পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। যদি বিজেপি ও কংগ্রেস উভয়েই ৪৬-এর থেকে কম আসন পায় এবং জেজেপি কোনোভাবে ১০টি আসন পায়, তাহলে চৌতালার হাতে তাস থাকবে।

অন্যদিকে আবার, Times Now, Republic TV, ABP News, TV9 Bharatvarsh ও News18-এর সমীক্ষার রিপোর্টের ভিত্তি করে একটি সমীক্ষা তৈরি করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মাত্র ১১টি আসন পাবে কংগ্রেস। অন্যান্যরা পাবে ১০টি আসন।

Times Now বলছে- বিজেপি পাবে ৭২-৭৫টি আসন, কংগ্রেস পাবে ৮-১০টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ৫-১০টি আসন।
ABP বলছে- বিজেপি পাবে ৬৯ টি আসন, কংগ্রেস পাবে ১১টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ১০টি আসন।
News18 বলছে- বিজেপি পাবে ৫৭ টি আসন, কংগ্রেস পাবে ১৭টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ১৬টি আসন।
যদি এই সমীক্ষা মিলে যায়, তাহলে মনোহর লাল খট্টর নজির গড়বেন। তিনিই হবেন হরিয়ানার প্রথম মুখ্যমন্ত্রী, যিনি পরপর দু’বার ক্ষমতায় আসছেন।