নয়াদিল্লি: এক্সিট পোল বলছে মহারাষ্ট্রে গেরুয়া ঝড়ে উড়ে যাচ্ছে বিরোধীরা। বিজেপি-শিব সেনা জোটই নাকি ক্ষমতায় আসবে। কিন্তু হরিয়ানা লড়াইটা ততটা সহজ হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। India Today-Axis My India-র বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। আর কিং মেকার হবে জেজেপি।

সমীক্ষা বলছে, বিজেপি পেতে পারে ৩২-৪৪টি আসন আর কংগ্রেস পাবে ৩০-৪২ টি আসন। অর্থাৎ ৯০ টি আসনের এই বিধানসভা নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাচ্ছে না কেউই। সমীক্ষা অনুযায়ী জেজেপি পাবে ১০টির মধ্যে ৬টি আসন। অর্থাৎ জেজেপি-ই হবে কিং মেকার। সমীক্ষা যদি ঠিক হয়, তাহলে জেজেপি অর্থাৎ চৌতালাদের বিচক্ষণতার সঙ্গে বেছে নিতে হবে, তারা কাকে সমর্থন করবে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন দুষ্যন্ত চৌতালা শুধু কিং মেকারই হবেন না। মুখ্যমন্ত্রীও হয়ে যেতে পারেন। অর্থাৎ কুমারস্বামীর মত পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। যদি বিজেপি ও কংগ্রেস উভয়েই ৪৬-এর থেকে কম আসন পায় এবং জেজেপি কোনোভাবে ১০টি আসন পায়, তাহলে চৌতালার হাতে তাস থাকবে।

অন্যদিকে আবার, Times Now, Republic TV, ABP News, TV9 Bharatvarsh ও News18-এর সমীক্ষার রিপোর্টের ভিত্তি করে একটি সমীক্ষা তৈরি করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মাত্র ১১টি আসন পাবে কংগ্রেস। অন্যান্যরা পাবে ১০টি আসন।

Times Now বলছে- বিজেপি পাবে ৭২-৭৫টি আসন, কংগ্রেস পাবে ৮-১০টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ৫-১০টি আসন।
ABP বলছে- বিজেপি পাবে ৬৯ টি আসন, কংগ্রেস পাবে ১১টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ১০টি আসন।
News18 বলছে- বিজেপি পাবে ৫৭ টি আসন, কংগ্রেস পাবে ১৭টি আসন ও অন্যান্যরা পাবে ১৬টি আসন।
যদি এই সমীক্ষা মিলে যায়, তাহলে মনোহর লাল খট্টর নজির গড়বেন। তিনিই হবেন হরিয়ানার প্রথম মুখ্যমন্ত্রী, যিনি পরপর দু’বার ক্ষমতায় আসছেন।

অন্যদিকে, মহারাষ্ট্রের ক্ষেত্রে India Today-Axis My India-র এক্সিট পোলে বলা হয়েছে, ২৮৮টি বিধানসভা আসনের মধ্যে বিজেপি-শিব সেনা জোট পাবে ১৬৬-১৯৪টি আসন। অন্যদিকে, কংগ্রেস-এনসিপি জোত পেতে পারে ৭০-৯০টি আসন। যদি এই সমীক্ষা সত্যি হয় তাহলে মহারাষ্ট্রের ইতিহাসে নজির তৈরি হবে, তৃতীয়বার একসঙ্গে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি-শিব সেনা জোট। ফড়নবিশ অবশ্য আগেই রেকর্ড করেছেন। গত পাঁচ দশকে তিনিই প্রথম মুখ্যমন্ত্রী যিনি পাঁচ বছরের টার্ম সম্পূর্ণ করেছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ