সিঙ্গাপুর: আগামী মাস থেকে শুরু হয়ে যাচ্ছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশের প্রিমিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগগুলি। তার আগে নিজেদের মধ্যে প্রীতি ম্যাচ খেলে প্রাক মরশুম প্রস্তুতি ঝালিয়ে নিচ্ছে প্রিমিয়র লিগ কিংবা সিরি-এ’র প্রথম সারির দলগুলি। রবিবার ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপ ফ্রেন্ডলিতে তেমনই একটি ম্যাচে ইংল্যান্ড জায়ান্ট টটেনহ্যামের মুখোমুখি হয়েছিল ইতালি জায়ান্ট জুভেন্তাস।

ম্যাচের ৯৩ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে ইংরেজ স্ট্রাইকার হ্যারি কেনের বিস্ময় গোলে জুভেন্তাসকে ৩-২ গোলে হারাল গত মরশুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও প্রিমিয়র লিগ রানার্সরা। পিছিয়ে পড়া ম্যাচে কেনের দর্শনীয় সেই গোলেই রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ জিতে নেয় টটেনহ্যাম। অতিরিক্ত সময়ে অবিস্মরণীয় গোলে দলকে ম্যাচ জিতিয়ে ইংরেজ অধিনায়ক জানান, ‘সম্ভবত এটা আমার কেরিয়ারের সেরা গোল।’

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের দলে রায়ডুকে না নেওয়ার কারণ দর্শালেন প্রসাদ

গোল প্রসঙ্গে কেনের আরও জানান, ‘প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক লাইন ছেড়ে মাঝে মাঝেই বেরিয়ে আসছিল। তাই আমি ভেবেছিলাম সুযোগটা নেওয়া যেতেই পারে। গোলরক্ষক গোললাইনে নেই দেখেই শটটা নিয়েছিলেম, ভাগ্যক্রমে সেটা গোলে ঢুকে গিয়েছে।’ কেনের দর্শনীয় গোলেই পেনাল্টি শুট আউটের দিকে এগিয়ে চলা ম্যাচে শেষ মুহূর্তে নাটকীয় মোড় আসে। এদিন প্রথমার্ধে এরিক লামেলার গোলে ম্যাচে এগিয়ে যায় স্পারস। তবে ৫৬ মিনিটে প্রথমে গঞ্জালো হিগুয়েনের গোলে ম্যাচে সমতা ফেরায় জুভেন্তাস।

আরও পড়ুন: অনুষ্কার টুইটের জবাব দিলেন সোনার মেয়ে হিমা

ঠিক চার মিনিট বাদেই গোল করে সিরি-এ জায়ান্টদের ম্যাচে এগিয়ে দেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। এরপর রেকর্ড চুক্তিতে ফরাসি ক্লাব লিয়ঁ থেকে আসা এনদোম্বেলেকে মাঠে নামিয়ে দেন টটেনহ্যাম কোচ। হতাশ করেননি ফরাসি ফুটবলার। মাঠে নেমে এক মিনিটের মধ্যেই তাঁর অ্যাসিস্টে টটেনহ্যামের হয়ে সমতা ফেরান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালের নায়ক লুকাস মৌরা। ম্যাচ শেষে অতিরিক্ত সময় মাঝমাঠ থেকে করা কেনের গোল প্রসঙ্গে পোচেত্তিনো জানান, ‘হ্যারির গোলটা অবিশ্বাস্য। প্রাক মরশুমটা গোলের মধ্যে থেকে শুরু করা ওর পক্ষে ভীষণই ইতিবাচক।’

টটেনহ্যাম কোচ আরও বলেন, ‘জয় নয় তবে ম্যাচে সেরাটা দেওয়ার চেষ্টায় ছিলাম আমরা। জয় দিয়ে শেষ করতে পেরে ভালোই লাগছে।’