নয়াদিল্লি: জনসভায় বক্তব্য রাখছিলেন কংগ্রেস নেতা হার্দিক পটেল। আর সেই প্রকাশ্য সভাতেই ছুটে এসে হার্দিককে চড় মারলেন এক ব্যক্তি। গুজরাতের সুরেন্দ্র নগরে ঘটেছে সেই ঘটনা।

শুক্রবার গুজরাতে দলের আয়োজন করা একটি সভায় বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। সেখানেই পতদার আন্দোলনের এই নেতার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটেছে।

ওই ব্যক্তি কে ছিল, সেই পরিচয় এখনও জানা যায়নি। সেই বিষয়ে চলছে তদন্ত।

২৫ বছরের হার্দিক পটেল ২০১৫ থেকে পতিদার সংরক্ষণের জন্য আন্দোলন করছেন। সম্প্রতি কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন তিনি। ভোটের আগে কংগ্রেসের হয়ে প্রচার করছেন গুজরাতের বিভিন্ন জায়গায়।

বৃহস্পতিবার তাঁকে শেষ মুহূর্তে হেলিকপ্টার বাতিল করতে হয়, কারণ এক কৃষক তাঁকে তাঁর জমিতে হেলিকপ্টার অবতরণে বাধা দেন। ফলে অন্তত ১০০ কিলোমিটার রাস্তা তাঁকে গাড়িতে যেতে হয়।

হার্দিক আসায় গুজরাতে অক্সিজেন ফিরে পেয়েছে কংগ্রেস। কারণ, ২০১৪ সালের নির্বাচনে গুজরাতের ২৬ টি আসনেই জয়লাভ করে বিজেপি। তাই হার্দিককে শিখণ্ডী করে গুজরাতে নোঙ্গর ফেলার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে উঠেছেন কংগ্রেস সভাপতি। হার্দিকও নির্বাচনে দাঁড়িয়ে যথেষ্ট আশাবাদী।