গান্ধীনগর:  বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন হার্দিক প্যাটেল। সামনেই লোকসভা নির্বাচন। আগামীদিনে প্রবল কাজের চাপের মধ্যে পড়তে হবে তাঁকে। আর সেজন্যে এই সময়টাকে যথার্থ হিসাবে মনে করেন মোদী বিরোধী এই নেতা। আর তাই আজ রবিবার ছোট বেলার বান্ধবীর সঙ্গেই গাঁটছড়া বাঁধলেন পতিদার আন্দোলনের এই নেতা।

জানা যাচ্ছে, পাত্রীর নাম কিঞ্জল পটেল। ছোটবেলার বান্ধবী। এরপর সেখান থেকে ধীরে ধীরে প্রেম। হার্দিকের বোনের সহপাঠী ছিলেন কিঞ্জল। হার্দিকদের বাড়িতেও তাঁর নিয়মিত আসা যাওয়া ছিল।

২০১৬ সালে দেশদ্রোহিতার অভিযোগে হার্দিক জেলে থাকার সময়েই দু’জনের বাগদানের কথা ঘোষণা করেছিলেন হার্দিকের বাবা-মা। অবশেষে পরিণতি পেল দুজনের প্রেম।হার্দিকের বাবা ভরত পটেল জানিয়েছেন, ‘‘বিয়ে করার জন্য এটাই হার্দিকের সঠিক সময়। তাই এ মাসেই বিয়ের অনুষ্ঠান সারতে চেয়েছিলাম আমরা।’’ সেই মতো শুভ কাজ সম্পন্ন হল।

হার্দিকের হবু স্ত্রী বর্তমানে আইন নিয়ে পড়াশোনা করছেন বলে জানা গিয়েছে। জানা গিয়েছে, হার্দিকের বিয়ে নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে বেশ হৈচৈ।