মুম্বই: সম্পর্কের শুরু থেকেই অনুরাগীদের যেন রিলেশনশিপ গোলের নয়া নয়া সংজ্ঞা শেখাচ্ছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও নাতাসা স্ট্যানকোভিচ। ফিটনেস টেস্টে ব্যর্থ হওয়ায় শুক্রবার থেকে শুরু হতে চলা নিউজিল্যান্ড সফরের টি-২০ স্কোয়াডে জায়গা হয়নি তাঁর। সুযোগ মেলেনি ওয়ান-ডে স্কোয়াডেও। রিহ্যাবের মধ্যে দিয়ে জাতীয় দলে ফিরে আসার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এরইমধ্যে বাগদত্তা নাতাসা স্ট্যানকোভিচের কাঁধে মাথা রেখে ইনস্টাগ্রামে স্টোরি পোস্ট করলেন হার্দিক।

নাতাসাকে মেনশন করে স্টোরিতে লাভ সাইন যোগ করেন জাতীয় দলের এই অল-রাউন্ডার। স্বাভাবিকভাবেই অনুরাগীদের ভীষণ মনে ধরে ছবিতে হার্দিক-নাতাসার এই কেমিষ্ট্রি। গত মঙ্গলবার নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলের স্টোরিতে ছবিটি পোস্ট করেছিলেন হার্দিক। উল্লেখ্য, চলতি বছরের প্রথম দিন সার্বিয়ান মডেল অভিনেত্রী নাতাসা স্ট্যানকোভিচের সঙ্গে এনগেজমেন্ট সারেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার। দুবাইয়ে মাঝসমুদ্রে ফ্লোটিং বোটে নাতাসাকে আংটি পরিয়ে দেন পান্ডিয়া।

এরপর মডেল অভিনেত্রীর সঙ্গে তাঁর লিপলকের ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই থেকেই কাপলদের নয়া নয়া রিলেশনশিপ গোল শেখাচ্ছেন হার্দিক। তালিকার সর্বশেষ সংযোজন বাগদত্তার কাঁধে মাথা রেখে মিষ্টি একটি মুহূর্তের ছবি। কিন্তু আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই অল-রাউন্ডারকে ব্যবহার করতে পারবে টিম ইন্ডিয়া, সেটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন।

পিঠের অস্ত্রোপচারের পর চার মাসেরও বেশি সময় মাঠের বাইরে। বাইশ গজে ফেরার জন্য আপাতত জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির তত্ত্বাবধানে কঠোর রিহ্যাবের মধ্যে দিয়ে নিজেকে প্রস্তুত করছেন বছর ছাব্বিশের পান্ডিয়া। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ান-ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচের আগে ভারতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলনও করেন তিনি।

এক সিনিয়র বিসিসিআই আধিকারিকের কথায়, ‘হার্দিকের ফিট হয়ে ওঠা ভীষণ জরুরি। যে মুহুর্তে এনসিএ থেকে ওর ফিটনেসের বিষয়ে সবুজ সংকেত মিলে যাবে সে মুহূর্তে দলে ও অটোমেটিক চয়েস হয়ে উঠবে।’ স্বাভাবিকভাবেই জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় নির্বাচকরা।