নয়াদিল্লি: একসময় কোহলির দলের প্রথম পছন্দ৷ বেফাঁস মন্তব্য করে বিরাটের সোনার সংসারের ছোট্ট সেই ছেলেটাই এখন রাতারাতি বকাটে ভিলেনের তকমায় জর্জরিত!

বাকিরা যখন বিশ্বকাপের জন্য নিজেকে সান দিয়ে নিচ্ছে, দলের থেকে অনেক দূরে তখন গৃহবন্দি পান্ডিয়া৷ বিতর্কে মূর্ছে পড়েছেন৷ দেশে ফিরে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন এক সময়ের মেজাজি এই ক্রিকেটার৷ এটাই কী তবে হার্দিকের শুদ্ধিকরণ৷ বিতর্কের পর সোশ্যাল মিডিয়ার একটি পোস্ট অন্তত এমনটাই ইঙ্গিত দিচ্ছে৷ সেই সঙ্গে ইঙ্গিত ঘুরে দাঁড়ার রাস্তার ধোনির থেকে অনুপ্রেরণা খুঁজছেন প্রতিশ্রুতিমান অল-রাউন্ডার৷

আরও পড়ুন- কোহলিকে চ্যালেঞ্জ, কী করবেন অধিনায়ক

শুক্রবারই দুরন্ত ইনিংস খেলে দেশকে ম্যাচ জিতিয়ে ফিরেছেন হার্দিকের এক সময়ের কাপ্তান ধোনি৷ গত একবছর ব্যাটে সেভাবে চোখে পড়ার মতো রান ছিল না৷ তাই বিশ্বকাপের আগে বুড়ো ঘোড়া বলে ধোনিকে চিমটি কাটা শুরু হয়েছিল৷ সব টিপ্পনির জবাব ব্যাটেই দিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মিস্টার কুল৷

অজিদের ডেরায় তিন ম্যাচে তিনটি অর্ধশতরান৷ যার শেষ দুটিতে আবার ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছেড়েছেন৷ সেই সঙ্গে নতুন ভূমিকায় চার নম্বরে এখন তিনি অ্যাঙ্কর কাম ফিনিশার৷ কোহলির দলের বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছেন৷ সিডনি, অ্যাডিলেডের পর মেলবোর্নে তাঁর ইনিংসের মাধ্যমেই, বিশ্বকাপে কেন তিনি কোহলির দলে ফেভারিট সেই উত্তর দিয়ে দিয়েছেন৷

আরও পড়ুন- চাহাল টিভিতে এসে জোড়া মাথার রহস্য ফাঁস নতুন অতিথির

মেলবোর্নের সিরিজ জেতানে ধোনির ৮৭ রানের মহামূল্যবান ইনিংস নিয়ে সতীর্থ কেদার যাদব এক পোস্টে লিখেছেন, ‘ধোনিভাই তোমার থেকে প্রতিদিনই লড়াই করাটা শিখি৷ যেমনটা এবার অজি সফরে তোমার ব্যাটিং দেখে শিখলাম কীভাবে ঘুরে দাঁডা়তে হয়৷ এভাবে এন্টারটেইন করে যেও৷ তোমাকে সেলাম৷’ কেদারের সেই পোস্টের পরই লাভ ইমোজি পোস্ট করেন হার্দিক৷ বিতর্কে জড়ানোর পর এই প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় খুঁজে পাওয়া গেল হার্দিককে৷

করনের শো’য়ে খুল্লামখুল্লা মন্তব্য করতে গিয়ে বিতর্কের চক্রব্যুহে জড়িয়ে ক্রিকেটজীবনে সসম্যা ডেকে এনেছেন৷ সোয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের পর নেটিজেন প্রতিদিন যেভাবে তাঁকে নিয়ে কাটাছেঁড়া করছে, সেকারণে লাভ সাইন পোস্টের পর আর একটি শব্দও খরচ করার সাহস দেখাননি হার্দিক৷ কঠিন সময়ে এবার ধোনির ইনিংস দেখে প্রত্যাবর্তনের অনুপ্রেরণা খুঁজছেন৷ ভারতীয় অল-রাউন্ডারের মনের মধ্যে কী চলছে, কেদারের পোস্টে হার্দিকের লাভ সাইনের কমেন্টই সেকথা বলে দিচ্ছে৷

আরও পড়ুন- ‘ক্যাচিং টিপস’ খুঁজছেন হতাশ ম্যাক্সওয়েল

অন্যদিকে জয়প্রিয় এক টিভি শোয়ে মেয়েদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বোর্ডের রোষানলে পড়েছেন হার্দিক ও রাহুল৷ ইতিমধ্যেই দুই ক্রিকেটারকে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজ থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে৷ প্রাক্তনদের অনেকেই কাটাছেঁডা় বন্ধ করে দুইজনকে ক্রিকেটে ফেরানোর পক্ষে মন্তব্য করেছেন৷ এবার দুই ক্রিকেটারের শাস্তি কমানোর পক্ষে মত দিলেন বোর্ডের কার্যনিবাহী প্রেসিডেন্ট সিকে খান্না৷ শনিবার সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বোর্ডের কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের সদস্যদের দুই ক্রিকেটারের শাস্তি শিথিল করার কথা ভেবে দেখার প্রস্তাব দিয়েছেন সিকে খান্না৷