মুম্বই: চোট সারিয়ে মাঠে ফিরেই দুরন্ত হার্দিক পান্ডিয়া৷ মুম্বইয়ে ডিওয়াই পাতিল টি-২০ টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ থেকেই ব্যাট ও বলে পারফর্ম করে চলেছেন টিম ইন্ডিয়ার অল-রাউন্ডার৷ শুক্রবার ফের ব্যাটে ঝড় তুললেন হার্দিক৷ ৫৫ বলে ১৫৮ রানের ইনিংস খেলে দলকে সেমিফাইনালে তুললেন জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার৷

চোটের জন্য নিউজিল্যান্ড সফরের দলে জায়গা হয়নি৷ কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধ তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজের আগে নিজেকে ম্যাচ ফিট প্রমাণ করার পাশাপাশি পারফর্ম করে জাতীয় নির্বাচকদের নজর কাড়েন হার্দিক৷ ব্যাট হাতে টুর্নামেন্টে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি এবং বলে ধারাবাহিকতা দেখিয়ে চলেছেন বরোদার এই অল-রাউন্ডার৷

ডিওয়াই পাতিল স্টেডিয়ামে টি-২০ টুর্নামেন্টে রিলায়েন্স ওয়ান দলের হয়ে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি এল হার্দিকের ব্যাট থেকে৷ মঙ্গলবার ৩৯ বলে ১০৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন৷ আর এদিন খেললেন ৫৫ বলে ১৫৮ রানের ইনিংস খেলেন টিম ইন্ডিয়ার নম্বর ওয়ান এই অল-রাউন্ডার৷ হার্দিকের ব্যাটে ভর করে বিপিসিএল-এর বিরুদ্ধে ৪ উইকেটে ২৩৮ রান তোলে রিলায়েন্স ওয়ান৷ ইনিংসে ২০টি ছক্কা এবং ৬টি বাউন্ডারি হাঁকান তিনি৷

প্রথম ম্যাচে রিলায়েন্স ওয়ান দলের হয়ে চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ব্যাংক অফ বরোদার বিরুদ্ধে ২৫ বলে ৩৮ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেছিলেন হার্দিক৷ ইনিংসে চারটি ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন তিনি৷ পরে বল হাতে প্রতিপক্ষের তিনটি উইকেট তুলে নিয়ে দলকে জিতিয়েছিলেন হার্দিক৷

দ্বিতীয় ম্যাচে সিএজি-র বিরুদ্ধে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করে দুর্দান্ত কামব্যাক করেন বরোদার এই অল-রাউন্ডার৷ ১০৫ রানের ইনিংসে ১০টি ছক্কা ও আটটি বাউন্ডারি মেরেছিলেন চোটের জন্য ভারতীয় দলের বাইরে থাকা এই ক্রিকেটার৷ পরে বল হাতে পাঁচ উইকেট তুলে নিয়ে প্রতিপক্ষকে ১৫১ রানে শেষ করে দেন হার্দিক৷
অস্ত্রোপচারের পর এটি ছিল হার্দিকের দ্বিতীয় ম্যাচ৷ অস্ত্রোপচারের পর দীর্ঘদিন রি-হ্যাবে ছিলেন তিনি৷ কিন্ত মাঠে নামার মতো পরিস্থিতি হয়নি৷ তাই নিউজিল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলে জায়গা হয়নি পান্ডিয়ার৷ অবশেষে বাইশ গজে ফিরে ব্যাট ও বলে দারুণ পারফর্ম করেন টিম ইন্ডিয়ার এই অল-রাউন্ডার৷

২০২০ বছরের প্রথম দিনেই বলিউড তথা সার্বিয়ান মডেল নাতাসা স্ট্যানকোভিচের সঙ্গে এনগেজমেন্টের ঘোষণা করেন হার্দিক৷ সম্পর্কের শুরু থেকেই অনুরাগীদের রিলেশনশিপ গোলের নয়া সংজ্ঞা শেখাতে থাকেন টিম ইন্ডিয়ার এই অল-রাউন্ডার৷ চোটের জন্য চার মাস ভারতীয় দলের বাইরে মুম্বইয়ের বছর ছাব্বিশের এই ক্রিকেটার৷