মুম্বই: মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের ওয়ান-ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে ভারতীয় দল। তার আগে ওয়াংখেড়েতে সোমবার দলের সঙ্গে অনুশীলন করলেন অল-রাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া।

পিঠের চোটের কারণে চার মাস মাঠের বাইরে থাকার পর প্রাথমিকভাবে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতীয় ‘এ’ দলের স্কোয়াডে নাম ছিল পান্ডিয়ার। কিন্তু ফিটনেস টেস্টে ব্যর্থ হওয়ায় শেষ মুহূর্তে ছিটকে গিয়েছেন তিনি। সূত্রের খবর, পিঠের অস্ত্রোপচারের পর এখনও পুরোপুরি সুস্থ নন জাতীয় দলের তারকা অল-রাউন্ডার। তাই স্কোয়াডের বাকিরা কিউয়ির দেশে উড়ে গেলেও দেশেই রয়ে গিয়েছেন পান্ডিয়া। তবে প্রস্তুতির মধ্যে দিয়ে নিজেকে ফিট করে তোলার জন্য জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে মাঠে নেমে পড়লেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ক্রিকেটার।

স্কোয়াডে না থাকলেও অ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগেরদিন ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে চুটিয়ে দলের সঙ্গে অনুশীলন সারলেন হার্দিক। অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ফাস্ট বোলার জসপ্রীত বুমরাহর সঙ্গে টার্গেট প্র্যাকটিসের পর বোলিং কোচ ভরত অরুণের কড়া নজরদারিতে ছিলেন অল-রাউন্ডার। উল্লেখ্য, অক্টোবরে পিঠে সফল অস্ত্রোপচারের পর ট্রেনার রজনীকান্তের অধীনে রিহ্যাব সারছিলেন জাতীয় দলের হয়ে ১১টি টেস্ট অ ৪৫টি ওয়ান-ডে খেলা ক্রিকেটার।

রিহ্যাবের মধ্যে দিয়ে ধীরে ধীরে ম্যাচ ফিট হয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে প্রত্যাবর্তনের অপেক্ষায় থাকলেও শেষ মুহূর্তে বাধ সাধল ফিটনেস টেস্ট। যদিও পান্ডিয়ার ফিটনেস টেস্টে ব্যর্থ হওয়া প্রসঙ্গে বিসিসিআই’য়ের এক সূত্র জানিয়েছে, ফিটনেস নয়, পান্ডিয়ার আসলে ওয়ার্কলোড টেস্ট হয়েছে। সূত্রের খবর, মূলত ওয়ার্কলোড টেস্টে চোট সারিয়ে ফেরা ক্রিকেটাররা নেট সেশনে দু-তিন ঘন্টা কাটানোর কতটা সায় দিচ্ছে সে দিকটি খতিয়ে দেখা হয়। মূলত এখানেই ব্যর্থ হয়েছেন মুম্বই অল-রাউন্ডার।

সম্প্রতি, নতুন বছরের প্রথমদিন দুবাইয়ে সার্বিয়ান বান্ধবী নাতাসা স্ট্যানকোভিচের সঙ্গে বাগদান সেরেছেন জাতীয় দলের এই গুরুত্বপূর্ণ অল-রাউন্ডার। মাঝ সমুদ্রে ফ্লোটিং বোটে বান্ধবীকে আংটি পরিয়ে শিরোনামে চলে আসেন হার্দিক। আপাতত তাঁর মাঠে ফেরার অপেক্ষাতেই অনুরাগীরা।