মুম্বই: খুশিতে ভাসছেন হার্দিক পান্ডিয়া-নাতাসা স্ট্যানকোভিচ। এমনিতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণ সক্রিয় দু’জন। প্রথমবার সন্তানলাভের আনন্দ যেন সেই সক্রিয়তাকে দ্বিগুণ করে দিয়েছে। সদ্যোজাতকে কোলে নিয়ে বিগত কয়েকদিন ধরে ঘন-ঘন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করেছেন চর্চিত এই জুটি। আর বুধবার হাসপাতালের চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে একটি ছোটখাটো পার্টি থ্রো করেছিলেন মিস্টার অ্যান্ড মিসেস পান্ডিয়া। পার্টিতে সন্তানলাভের খুশিতে কেক কাটেন দু’জনে।উপস্থিত ছিলেন আকাঙ্খা হাসপাতালের চিকিৎসক এবং চিকিৎসাকর্মীরা।

চিকিৎসক-নার্সদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুষ্ঠানের ছবি পোস্ট করেন পান্ডিয়া। সেখানে জাতীয় দলের অল-রাউন্ডার লেখেন, ‘আকঙ্খা হাসপাতালকে অশেষ ধন্যবাদ। গত এক সপ্তাহে তোমরা আমাদের বাড়ি থেকে দূরে আরেকটা বাড়ির মতোই যত্ন করেছো। ড: মোলিনা প্যাটেল, ড: নয়ন প্যাটেল তোমরা অসাধারণ। ধন্যবাদ আমার সন্তানকে পৃথিবীতে নিয়ে আসার জন্য। তোমাদের কাছে আজীবন কৃতজ্ঞ আমরা।’

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার অনুরাগীদের খুশির খবর দিয়েছিলেন জাতীয় দলের অল-রাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। সন্তানলাভের খবর দিয়ে সদ্যোজাতর হাতের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন বছর ছাব্বিশের অল-রাউন্ডার। এরপর শনিবার সদ্যোজাতকে কোলে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করেছিলেন সদ্য বাবা হওয়া মুম্বই ক্রিকেটার। বৃহস্পতিবার সন্তানের হাতে হাত রেখে হার্দিক সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, ‘ঈশ্বর আমাদের পুত্র সন্তান দিয়ে আশীর্বাদ করেছেন।’

এরপর বিগত কয়েকদিন ধরে হাসপাতালের বেডে বেটার হাফ এবং সদ্যোজাতর ছবি বিভিন্ন সময় পোস্ট করেছেন পান্ডিয়া। এর আগে গত মাসে স্ত্রী’র বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করে সন্তানলাভের অগ্রিম আনন্দ উপভোগ করছিলেন এই ক্রিক-বলি দম্পতি৷ তাঁদের ফ্যানেদের উদ্যেশে তিনি লিখেছিলেন, “Natasa and I have had a great journey together and it is just about to get better. Together we are excited to welcome a new life into our lives very soon. We’re thrilled for this new phase of our life and seek your blessings and wishes.”

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা