লন্ডন: ক্রিকেট মক্কায় ভারতের লজ্জার হারে বিরাটদের ‘হেডস্যার’ রবি শাস্ত্রীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাচ্ছেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অফ-স্পিনার৷ চলতি ইংল্যান্ড সফরে প্রথম দু’টি টেস্ট হেরে পাঁচ ম্যাচেরে সিরিজে ০-২ পিছিয়ে ভারত৷ এজবাস্টনে প্রথম টেস্ট জয়ের দোরগোড়ায় গিয়েও হেরেছে টিম ইন্ডিয়া৷ আর লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে ভারতকে ইনিংসে হারের লজ্জা দিয়েছে কোহলি অ্যান্ড কোহলি৷

ক্রিকেট মক্কায় ভারতের লজ্জার হারের জন্য কোচ শাস্ত্রীকে দায়ী করছেন হরভজন সিং৷ টার্বুনেটরের মতে, ‘লর্ডস টেস্টে ভরাডুবির ব্যাখ্যা কোচ হিসেবে শাস্ত্রীকে আজ বা কাল দিতে হবে৷ প্রত্যেকের কাছে ও জবাব দিতে বাধ্য৷ ভারত সিরিজ হারলে তখন হয়তো ও কথা ঘুরিয়ে বললে, ইংল্যান্ডের পরিবেশেই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে৷’

আরও পড়ুন: দেশবাসীর কাছে বিশেষ অনুরোধ কোহলির

বিরাট কোহলির নেতৃত্বে ভারত টেস্টে এত খারাপ খেলেনি৷ এজবাস্টনে ১৯৪ রান তাড়া করতে নেমেও চারদিনে ম্যাচ হেরেছে ভারত৷ আর লর্ডসে তিন দিনেই রুটবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে বিরাটবিগ্রেড৷ ইংনিস ও ১৫৯ রানে হেরেছে ভারত৷ বৃষ্টির জন্য প্রায় দেড় দিন পর খেলা শুরু হলেও চতুর্থ দিনেই ম্যাচ গুটিয়ে দেয়ে ইংরেজ বোলাররা৷ জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডদের সামনে অসহায় আত্মসমপর্ণ করে বিরাট-রাহানেরা৷

কিন্তু ইংল্যান্ড সফরে যাওয়ার আগে শাস্ত্রীয় বচন ছিল, ‘আমাদের কাছে অ্যাওয়ে সিরিজ বলে কিছু নেই৷ প্রতিটি ম্যাচই আমাদের হোম গেম৷ আমরা প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাবি না৷ আমরা পিচ দেখে খেলি৷ আমাদের লক্ষ্য হল পিচ জয় করে এগিয়ে যাওয়া৷’ ইংল্যান্ডে ভারত পাঁচ টেস্টের সিরিজ হারলে বড় বড় কথা বলা শাস্ত্রীকে কৈয়ফিয়ৎ দিতে বলে জানান দেশের হয়ে ১০৩টি টেস্ট খেলা অফ-স্পিনার৷

আরও পড়ুন: এমন ব্যাটিং মেনে নেওয়া যায় না, শাস্ত্রীকে তোপ বিনোদ রাইয়ের

এখনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া ভাজ্জি দীর্ঘদিন ধরে বিরাটের দলে ব্রাত্য৷ স্কাই স্পোর্টসের ধারাভাষ্য দেওয়ার জন্য এই মুহূর্তে লন্ডনে রয়েছেন হরভজন৷ মাঠে বসে বিরাটদের খেলা দেখেছেন তিনি৷ লর্ডসে ভারতীয় ক্রিকেটাররা লড়াইয়ের আগেই হার মেনেছে বলে মনে করেন টার্বুনেটর৷ ভাজ্জি বলেন, ‘লর্ডসে ভারতীয় দলের লডাইয়ের কোনও ইচ্ছে চোখে পড়েনি৷ জেতার ইচ্ছে ছিল না৷ এটা অত্যন্ত হতাশজনক৷ প্রতিপক্ষকে কোনও চ্যালেঞ্জ না-দিয়েই আমরা হেরেছি৷’

ইংল্যান্ডে বিরাটদের সিরিজ জয়ের স্বপ্ন এখন অলীক৷ কারণ ০-২ পিছিয়ে থেকে ইংল্যান্ডে বিরাটদের সিরিজ জয় কি সম্ভব? পরিসংখ্যান বলছে ইতিহাসে  একবারই এমনটা ঘটেছে৷ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ টেস্টের সিরিজে ০-২ পিছিয়ে থেকে সিরিজ জিতেছে অস্ট্রেলিয়া৷ ১৯৩৬-৩৭ ডন ব্র্যাডম্যানের অস্ট্রেলিয়া ০-২ পিছিয়ে থেকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অ্যাশেজ জিতেছিল৷

আরও পড়ুন: শাস্ত্রী ভারতীয় ক্রিকেটে গ্রেগ চ্যাপেলের থেকেও বিপজ্জনক