বারাকপুর: রাজ্য সরকারের উদ্যোগে পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে উত্তর ২৪ পরগনার হালিশহরকে সাজিয়ে তোলার পরিকল্পনা আগেই নেওয়া হয়েছিল৷ কালী সাধক রামপ্রসাদ সেনের জন্মভিটে হিসেবে এমনিতেই গঙ্গা পাড়ের হালিশহরের আলাদা পরিচিতি রয়েছে৷ এবার হালিশহরকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে তৈরি হল হালিশহরের প্রবেশদ্বার৷

মঙ্গলবার রাজ্য সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের প্রতিমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন সুসজ্জিত হালিশহরের এই প্রবেশদ্বার উদ্বোধন করেন৷ অত্যাধুনিক টেরাকোটার শিল্পকর্মে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এই প্রবেশদ্বারকে৷ এছাড়াও হালিশহর পুরসভার পক্ষ থেকে হালিশহরে নির্মিত সাধক রামপ্রসাদ সেনের পূর্নাবয়ব মূর্তিরও উদ্বোধন হল এদিন৷ রামপ্রসাদ সেনের মূর্তি উন্মোচন করেন মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন৷ এছাড়াও হালিশহর পুরসভার তরফে নীয় একটি পার্ককেও সংস্কার করে সাজিয়ে তোলা হয়েছে৷

মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হালিশহরের প্রবেশদ্বারের উদ্বোধন করে জানান, রাজ্যে তৃণমূলের সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই পুরোন হেরটেজ স্থাপত্যের সংস্কারে নজর দিয়েছে৷ হালিশহরেও এবার প্রবেশদ্বার তৈরি হল৷ টেরাকোটার শিল্পকর্মে সুসজ্জিত এই প্রবেশদ্বার নজর কাড়বে পর্যটকদের৷ রাজ্য সরকারের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন এলাকার বাসিন্দারাও৷ রাজ্যের এই উদ্যোগের জেরে বাইরের বাসিন্দাদের কাছে হালিশহর আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে বলে মত এলাকাবাসীর৷

হালিশহরকে নতুন করে সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে হালিশহর পুরসভা৷ পুরসভাকে এব্যাপারে সব রকম সহযোগিতা করছে রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর৷ রাজ্যের পর্যটন মানচিত্রে ঐতিহাসিক হালিশহরের গুরুত্ব পর্যটকদের কাছে অনেকটাই বাড়বে বলে মনে করছেন হালিশহরের বিশিষ্টজনেরা৷