স্টাফ রিপোর্টার, হলদিয়া: “জীবে প্রেম করে যেই জন, সেই জন সেবিছে ঈশ্বর ” স্বামী বিবেকানন্দের এই বানীকে পাথেয় করে বছরের শুরুতে দুঃস্থ-অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে পথ চলা শুরু হল ‘মানবতার কুটিরের’। দরিদ্র, অশীতিপর মানুষদের সাহায্য করতে শনিবার এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্বোধন হয়, শিল্প শহর হলদিয়ার দুর্গাচক কলোনির বাজার এলাকায়।

জানা গিয়েছে, এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মূল উদ্দেশ্য হল, সাধারণ মানুষের অপ্রয়োজনীয় ব্যবহারযোগ্য পোশাক সংগ্রহ করে তা দরিদ্র মানুষদের মধ্যে দান করা। শুধু তাই নয়, ঘরের অপ্রয়োজনীয় পোশাক এই কুটিরে এনে জমা দিলে, সেই পোষাক দুঃস্থ মানুষদের বিতরণ করা হবে।

আর এই উদ্দেশ্যে, শনিবার এলাকার কয়েকশো মানুষ প্রায় পাঁচ হাজার পুরানো জামাকাপড় মানবতার কুটিরের এনে জমা করেন। অসহায় গরিব মানুষরা তাঁদের পছন্দমতো সেই কুটির থেকে সারা বছর ধরে প্রয়োজনীয় জামাকাপড় গ্রহন করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকে এলাকার প্রায় ৫০০ মানুষের হাতে একটি করে নতুন শাল ও মিষ্টির প্যাকে তুলে দেওয়া হয় উদ্যোগতাদের পক্ষ থেকে।

জানা গিয়েছে, হলদিয়ার কয়েকজন সমাজসেবী মিলে এই উদ্যোগ গ্রহন করে। সেই উদ্দেশ্য সফল করতেই হলদিয়ার দূর্গাচকে কলোনী মার্কেটে একটি স্থায়ী কুটিরও গড়ে তোলা হয়েছে। সেখান থেকেই সারা বছর ধরে অসহায় মানুষদের জামা-কাপড় বিতরণ করা হবে। এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদে শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষা,সমাজসেবী এস.পি বন্দ্যোপাধ্যায়, শিববনাথ সরকার, পার্থ বট্টব্যাল, আস্তিক চট্টোপাধ্যায়, সত্য শংকর সাহু, মুজিব খান,নূর আলম সহ অন্য অন্য বিশিষ্ট কর্তা ব্যক্তিরা। এদিকে শিল্প শহর হলদিয়ার মানুষ এই ধরনে মানবিক পরিষেবা পেয়ে খুব খুশি।