হলদিয়া: জমি নিয়ে বিবাদের জেরে ধুন্ধুমার হলদিয়ায়। হলদিয়া পুরসভার ৩ নং ওয়ার্ডে দাদার হাতে আক্রান্ত ভাই। ধারালো অস্ত্রের কোপে গুরুতর জখম আরও দুই। আহতরা হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

হলদিয়ার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ভাগ্যবন্তপুরে জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ গোকুল হালদার ও তাঁর ভাই নারায়ণ হালদারের। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায়ই জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের ঝগড়া চলতো। দুই ভাইয়ের ঝগড়ায় প্রায়ই জড়িয়ে পড়তেন দুজনের স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরাও। সোমবার রাতেও জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে ফের শুরু হয় বিবাদ। মুহুর্তে সেই বিবাদ চরম আকার নিতে শুরু করে।

দাদা গোকুল হালদার ও তাঁর স্ত্রী চড়াও হন ভাই নারায়ণ হালদার ও তাঁর পরিবারের উপর। গোকুল ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। অতর্কিতে হামলায় গুরুতর জখম হন নারায়ণের স্ত্রী ও মেয়েও। দাদার হামলায় জখম হন ভাই নারায়ণও। তাঁদের চিৎকারেই ছুটে আনে প্রতিবেশীরা। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত গোকুল ও তাঁর স্ত্রী। রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করেন প্রতিবেশীরা। হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় আহতদের। এখনও হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে আহতদের।

এদিকে, ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত গোকুল হালদার ও তার পরিবার পলাতক। মঙ্গলবার সকালে এলাকার মানুষ উত্তেজিত হয়ে গোকুলের বাড়িতে চড়াও হয়। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে সরব প্রতিবেশীরা। হলদিয়ার দুর্গাচক থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পুলিশ কাউকেই গ্রেফতার করতে পারেনি।