স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: মহিষাদলের পর এবার হলদিয়া৷ ফের হাত-পা বাঁধা অবস্থায় এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার হল হলদি নদীর চর থেকে৷ ঘটনার জেরে এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷ তবে যুবকের পরিচয় জানা যায়নি৷ আনুমানিক বয়স ৩২৷

গত ২৩ শে জানুয়ারি মহিষাদলের মাশুড়িয়ার একটি পুকুর থেকে নগ্ন অবস্থায় হাত, পা বাঁধা এক অঞ্জাত পরচিয় যুবকের দেহ উদ্ধার হয়েছিল। তার দুদিন পরেই শুক্রবার সকালে হলদিয়ার রায়রাচক এলাকায় হলদি নদীর চর থেকে এক যুবকের হাত, পা বাঁধা অবস্থায় মৃতদেহ উদ্ধার হল৷

এদিন সকালে হলদি নদীর চরে দেহটি পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় মানুষ৷ তাঁরাই পুলিশকে খবর দেয়৷ খবর পেয়ে পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের পাঠিয়েছে। তবে নিহত যুবকের পরিচয় জানা যায়নি। পর পর রাতের অন্ধকারে এভাবে খুনের ঘটনা ঘটায় পুলিশি নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন সাধারন মানুষ। তাঁরা রাতে পুলিশি নজরদারি বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন৷

পুলিশের অনুমান, রাতের অন্ধকারে ফাঁকা জায়গাকে কাজে লাগিয়ে খুনের ঘটনা ঘটিয়ে চম্পট দিচ্ছে দুষ্কৃতীরা। মহিষাদল ও হলদিয়ার দুটি ঘটনার মধ্যে কোনও যোগ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।