গুয়াহাটি: স্ত্রী শাঁখা সিঁদুর পরতে না চাওয়ায় স্বামী ডিভোর্সের আবেদন করায় সেই আবেদন মঞ্জুর করল গুয়াহাটি হাইকোর্ট। বর্তমানে স্বাধীনচেতা স্ত্রীদের মধ্যে অনেকেরই প্রবণতা থাকে শাঁখা সিঁদুর না পরার।‌ কিন্তু স্ত্রীর এমন আচরণ দেখে ভালো না লাগায় স্বামী অভিযোগ জানায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ থাকতে চাইছে না তার স্ত্রী। আর তাই বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেন ওই স্বামী। তখন সেই আবেদন মঞ্জুর করে আদালত।

২০১২ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি এই দম্পতির বিয়ে হয়েছিল। কিছুদিন পরে একটা সমস্যা দেখা যায় কারণ স্ত্রী স্বামীর পরিবারের সঙ্গে একসঙ্গে থাকতে চায় না । এর ফলে ২০১৩ সালের ৩০ জুন থেকে সে আলাদা থাকতে শুরু করে। মহিলা আদালতে ওই স্ত্রী অভিযোগ করেছিল‌ স্বামী পরিবার তার উপর অত্যাচার করে। যদিও এই ব্যাপারে কোন সুরাহা পাওয়া যায়নি।

এদিকে সম্প্রতি স্বামী আবার ফ্যামিলি কোর্টে অভিযোগ জানিয়েছিলেন তার স্ত্রী বিবাহ বন্ধনের প্রতীক স্বরূপ শাঁখা সিঁদুর পরতে চাইছে না। তাই তিনি বিবাহ বিচ্ছেদ চাইছেন। কিন্তু স্ত্রীয়ের আচরণে কোনরকম নিষ্ঠুরতা দেখতে না পাওয়ায় ওই আবেদন খারিজ করে দেয় ফ্যামিলি কোর্ট।
তখন স্বামী ওই আবেদন নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। প্রধান বিচারপতি অজয় লম্বা এবং বিচারপতি সৌমিত্র সাইকিয়া সেই আবেদন খতিয়ে দেখে এবং পর্যবেক্ষণ করে জানান, স্ত্রী যদি শাঁখা সিঁদুর না পরেন তবে তিনি স্বামীর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক মানতে চাইছেন না এবং সেক্ষেত্রে তাকে অবিবাহিত বলে ধরে নেওয়া হবে। গত ১৯ জুন তারা এমন নির্দেশ দেন।

পাশাপাশি তাদের বক্তব্য, স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে প্রমাণ ছাড়া অভিযোগ সুপ্রিম কোর্টের নিয়ম অনুসারে নিষ্ঠুরতার সমান। এই দিকটি ফ্যামিলি কোর্ট উপেক্ষা করেছে। ‌ তাছাড়াও ওই মহিলা স্বামীকে তার বৃদ্ধ বাবা মাকে দেখাশোনার ব্যাপারে আপত্তি তুলেছে। এটাও বৃদ্ধ বাবা-মায়ের ভরণপোষণ ও বরিষ্ঠ নাগরিক আইনের বিধান অনুসারে নিষ্ঠুরতা।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV