স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: পিছিয়ে গেল জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চে বিমল গুরুং এবং রোশন গিরির অন্তর্বর্তী মামলার শুনানি। আগামী ২৫ ও ২৬ এপ্রিল পুনরায় মামলার শুনানি হবে। দেশদ্রোহিতা এবং বিস্ফোরক দুটি মামলায় মঙ্গলবার বিমল গুরুং এবং রোশন গিরির অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদনের শুনানি হবে কলকাতা হাইকোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চে।

প্রথমে সুপ্রিম কোর্টে জামিনের মামলার আবেদন করা হয়েছিল৷ সেখান থেকে হাইকোর্টে আবেদন করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এই মামলায় মঙ্গলবার রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত এবং সরকারি আইনজীবী শাশ্বত-গোপাল মজুমদার রাজ্যের পক্ষে মামলায় সওয়াল করবেন।

বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভরা দত্তের ডিভিশন বেঞ্চে শুনানি হবে। তবে জামিন যদিও গুরুং ও রোশন গিরি পান তাহলেও বিকেল হয়ে যাবে। কাগজপত্র দেরি হবে। তাহলে শেষ দিনের প্রচারে গুরুং অংশ নিতে পারবেন না বলেই মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।

উল্লেখ্য, অনেক জল্পনার অবসান ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পর মুখ্যমন্ত্রীর হাত দিয়ে সূচনা হয়েছিল জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ৷ এরপর ১১ মার্চ শুরু হয়েছিল কাজকর্ম৷ শুরু হয়েছিল মামলা নথিভুক্তকরনের কাজও। কিন্তু এদিনের মামলা কেন পিছিয়ে গেল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন আইনজীবীমহলের একাংশ।