নয়াদিল্লি: শুক্রবারের নমাজের আগে চূড়ান্ত সতর্কতা গুরুগ্রামে। ধর্মীয় স্থানগুলির সামনে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এলাকাবাসীর সঙ্গেও জনসংযোগ বাড়ানোর চেষ্টা পুলিশের। এলাকায় চলছে পুলিশি টহলদারি। অপ্রীতিকর পরিস্থিতির মোকাবিলায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শান্তি ফিরেছে দিল্লিতে। বুধবার রাতের পর থেকে রাজধানীতে নতুন করে অশান্তির খবর মেলেনি। যদিও রবিবার থেকে চলা টানা ৩ দিন দফায় দফায় সংঘর্ষের জেরে এখনও পর্যন্ত ৩৮ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। দুশোর কাছাকাছি মানুষ সংঘর্ষে আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। দিল্লি পুলিশি হিংসার ঘটনায় ৪৫টিরও বেশি এফআইআর দায়ের করেছে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির অলিতে-গলিতে চলছে পুলিশি টহলদারি।

উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে শান্তি ফেরাতে সাধারণ মানুষের সঙ্গেও কথা বলছে পুলিশ। চাঁদবাগে বন্ধ দোকান-বাজার খএালার অনুরোধ জানাচ্ছে পুলিশ। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে স্থানীয়দের এগিয়ে আসতে অনুরোধ জানিয়েছেন দিল্লির যুগ্ম পুলিশ কমিশনার। এলাকায় শান্তির পরিবেশ ফেরানোর প্রধান লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশকর্তা।

এদিকে, আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মা খুনে নাম জড়িয়েছে আপ নেতা তাহির হোসেনের। তারই জেরে তাহিরকে দল থেকে সাসপেন্ড করল আপ। দিল্লির সংঘর্ষে তাহিরের যুক্ত থাকার অভিযোগ মিলেছে। তাহির ও তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে খুন, আগুন লাগানো ও সংঘর্ষের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। আম আদমি পার্টি সূত্রে জানা গিয়েছে, পুলিশি তদন্তে তাহির নির্দোষ প্রমাণ না হওয়া পর্যন্ত তার সাসপেনশন বহাল থাকবে।

সিএএ সমর্থনকারী ও বিরোধীদের মধ্যে দফায়-দফায় সংঘর্ষের জেরে একটানা ৩ দিন উত্তপ্ত ছিল উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিস্তীর্ণ এলাকা। দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নিহত হন আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মা। মঙ্গলবার জাফরাবাদে আপ নেতা তাহির হোসেনের বাড়ির কাছে একটি নর্দমা থেকে অঙ্কিতের ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়।

বাড়ি ফেরার সময় তাঁর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে উত্তেজিত জনতার বিরুদ্ধে। ছেলেকে খুনের পিছনে তাহির তার অনুগামীদের মদত রয়েছে বলে থানায় অভিযোগ করেন অঙ্কিতের বাবা রবীন্দ্র শর্মা। বেধড়ক মারধরের পর অঙ্কিতকে গুলি করে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর।