হায়দ্রাবাদ: এক দেশ-এক কর কিংবা স্বাধীনতার পরে পরোক্ষ করের ক্ষেত্রে এটি যে সম্ভবত বৃহত্তম সংস্কার তেমনটাই শোনা গিয়েছে একাধিকবার। তবে রাজ্যসভা সদস্য এবং বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী কেন্দ্রকে কটাক্ষ করে বলেছেন জিএসটি ‘একবিংশ শতকের সবচেয়ে বড় পাগলামী’।

সাম্প্রতিক সময়ে ভারত সরকারের পণ্য ও পরিষেবা কর’কে সমালোচনা করে তিনি বলেছেন, যদি দেশ ২০৩০ সালের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ হতে চায় তাহলে দেশের বৃদ্ধি বার্ষিকভাবে ১০ শতাংশ হারে হওয়া উচিত।

সুব্রহ্মণ্যম স্বামী আরও দাবি, প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী পি ভি নরশিমা রাওকে তাঁর রাজত্বকালে গুরুত্বপূর্ণ সংস্কারের জন্য সবচেয়ে বড় নাগরিক সম্মান ভারত রত্ন দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন।

প্রাঙ্গণ-ভারতী দ্বারা পরিচালিত ‘ইন্ডীয়া ইকোনমিক সুপারপাওয়ার ২০৩০’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তিনি বলেন, “যদিও দেহ বার্ষিকভাবে ৮ শতাংশ বাড়লেও, কংগ্রেস নেতার দায়িত্বে বড় কোনও উন্নতি হয়নি”।

তবে ৩.৭ শতাংশ আরও পেতে গেলে আমাদের দুর্নীতির সঙ্গে যুদ্ধ করতে হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেছেন, যারা টাকা ঢালছেন তাঁদের জিএসটি নিয়ে ভয় দেখাবেন না যা একুশ শতকের সবচেয়ে বড় পাগলামি। জিএসটি ভীষণ জটিল, কেউ বুঝতে পারে না যে কোন ফর্ম ফিল-আপ করতে হবে।