করোনা পরবর্তী সময়ে গোটা বিশ্বের কাছে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল কর্ম সংস্থান। বাদ যায়নি ভারতও। ভারতেও করোনা পরবর্তী সময়ে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ছিল কর্ম সংস্থান। যদিও নতুন বছরে একাধিক সংস্থার তরফে শুরু হয়েছে কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া।

পাশপাশি সরকারি ক্ষেত্রেও শুরু হয়েছে কর্মী নিয়োগ। তাঁর মধ্যে জানা গিয়েছে এবারে ভারতীয় রেলে কর্মী নিয়োগ নিয়োগ হতে চলেছে গ্রুপ সি পদে। জানা গিয়েছে দক্ষিণ পূর্ব রেলে কর্মী নিয়োগের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। জানানো হয়েছে মত ২৬ টি পদে নিয়োগের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ কড়া হবে।

তবে জানা গিয়েছে এই নিয়োগ হবে স্পোর্টস কোটার ভিত্তিতে। এই পদে নিয়োগের জন্য প্রার্থীদের কমপক্ষে মাধ্যমিক পাশ করতে হবে অথবা স্নাতক প্রারথীরাও এই পদের জন্য আবেদন করতে পারেন বলে জানানো হয়েছে। জানানো হয়েছে প্রার্থীদের আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আবেদন করতে হবে।

এছাড়া জানানো হয়েছে এই পদে আবেদনের জন্য প্রার্থীদের বয়স ১৮ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। জানানো হয়েছে বিভিন্ন পদে আবেদনের জন্য প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা দশম শ্রেনী পাশ থেকে স্নাতক হতে হবে। এহারা জানানো হয়েছে এই পদে আবেদনের জন্য প্রার্থীদের আবেদন ফি দিতে হবে।

জেনারেল প্রার্থীদের ক্ষেত্রে দিতে হবে ৫০০ টাকা। অন্যদিকে সন্রক্ষিত এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে দিতে হবে ২৫০ টাকা। আগ্রহী প্রার্থীদের ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট secr.indianrailways.gov.in এই ওয়েবসাইট মারফত আবেদন করতে হবে।

পাশপাশি এও জানানো হয়েছে নিয়োগ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য প্রার্থীদের একবার ওয়েবসাইট দেখতে হবে। এই নিয়োগের ফলে সুবিধা হবে সাধারণ প্রার্থীদের।

পাশপাশি স্পোর্টস কোটার সঙ্গে যারা যুক্ত তারাও আবেদন করতে পারবেন। এছাড়া ভারতীয় রেলে চাকরি করা অনেকের কাছেই যথেষ্ট আকর্ষণের। সেই কারণেই মনে করা হচ্ছে এই নিয়োগ সুবিধা দেবে সাধারণ মানুষদের।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।