ভুবনেশ্বর: কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোনও ভ্রমণকারী বছরে দেশের ভিতর ১৫টি পর্যটন স্থানে গেলে তাঁকে পুরস্কৃত করা হবে৷ সেক্ষেত্রে ওই ভ্রমণকারীর ভ্রমণের খরচ বহন করে ইনসেন্টিভ স্বরূপ দেওয়া হবে ৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল একথা জানিয়েছেন৷

বণিকসভা আয়োজিত পর্যটনের উপর এক সম্মেলনে এ কথা জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ৷ তাঁর বক্তব্য, পর্যটন মন্ত্রক ভ্রমণের খরচ বহন করবে যে সব ভ্রমণকারী বছরে দেশের ভিতর ১৫টি স্থানে বেড়াতে যাবেন এবং সেই বেড়ানোর ছবি তাদের ওয়েব সাইটে জমা করবেন৷ তবে এক্ষেত্রে শর্ত হল ভ্রমণকারীকে তাঁর নিজের রাজ্যের বাইরে বেড়াতে যেতে হবে বলে তিনি জানান৷

কেন্দ্রীয় সরকারের এই ‘পর্যটন পর্ব’ উদ্যোগের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ওই ব্যক্তিকে অন্তত ভারতের ১৫টি পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে আসতে হবে ২০২২ সালের মধ্যে৷ পর্যটন মন্ত্রক চাইছে যারা এক বছরের মধ্যে এই কাজ সম্পূর্ণ করতে পারবে তাদের পুরস্কৃত করা হবে ৷ প্যাটেল বলেছেন, ‘‘এটি কোনও অর্থগত সুবিধা নয়, এটা একটা ইনসেন্টিভ স্বরূপ হবে ৷ আমরা ওই ব্যক্তিদের সন্মানিত করব ভারতের পর্যটনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাস্যাডোর হিসেবে ৷’’

কেন্দ্রীয় পর্যটনমন্ত্র জানিয়েছেন কোনারকের সূর্যমন্দির আইকনিক স্থান হিসেবে তালিকায় যুক্ত হবে৷ এজন্য শীর্ঘ্রই একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে যাতে ঘোষণা করা হবে কোনারকের সূর্যমন্দিরটি আইকনিক স্থান হিসেবে তালিকায় যুক্ত হচ্ছে বলে তিনি জানান৷ এদিকে পর্যটন মন্ত্রক যারা ট্যুরিস্ট গাইড হতে চান তাদের জন্য একটি সার্টিফিকেট কোর্স চালু করেছে৷ কিন্তু এই কোর্সে ওডিশাবাসীদের তেমন অংশ নিচ্ছে না বলে জানান পর্যটন দফতরের অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল রূপীন্দ্রর ব্রার ৷ এই দিকে ওডিশা সরকারের এদিকে, নজর দেওয়া দরকার৷