নয়াদিল্লি: এখন এই করোনাভাইরাসকে আটকাতে লক ডাউনের জেরে রীতিমতো বিপাকে পড়েছেন বহু মানুষ। তাদের অসুবিধার কথা চিন্তা করে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সমস্ত ঝুলে থাকা আয়কর রিফান্ড দ্রুত ফেরতের ব্যবস্থা করছে সরকার।‌ আয়কর দফতর তার অফিশিয়াল টুইটার মারফত ঘোষণা করেছে, আয়কর দফতর ব্যক্তিগত এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সমস্ত ঝুলে থাকা পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত রিফান্ড অবিলম্বে ফেরতের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, করোনা ভাইরাসের কারণে‌ দেশজুড়ে লকডাউন নেমে আসায়। এই সিদ্ধান্তের ফলে ১৪ লক্ষ করদাতা সুবিধা পাবে। এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সেই সব ব্যক্তিদের কথা চিন্তা করে যারা এখন নগদের সমস্যায় ভুগছেন কাজ হারিয়ে অথবা বেতন কমে যাওয়ায় অথবা কর্তৃপক্ষ বা মালিকের কাছ থেকে বেতন পেতে দেরি হ ওয়ায়।

এই আয়কর রিফান্ডের টাকা যা দফতরে আটকে রয়েছে তা হাতে আসলে ‌ ওইসব ব্যক্তিদের সুবিধা হবে। যদি কোন অর্থবর্ষে আয়কর দাতার যতটা আয়কর দেওয়ার কথা তার থেকে বেশি আয়কর কাটা হয়ে থাকে তাহলে দপ্তরে যে অতিরিক্ত আয়কর জমা রয়েছে সেটা আয় করদাতাকে ফেরত দিয়ে দেওয়া হয়, এটাকেই ‌ আয়কর রিফান্ড বলে।

এখন যতটা আয়কর দেওয়ার দায় রয়েছে তার থেকে বেশি আয়কর কাটা হলে বা জমা হলে তা ফেরতের জন্য দফতরের কাছে আয়কর রিটার্নের মাধ্যমে আবেদন করতে হয়। ওই আবেদন খতিয়ে দেখে যদি সত্যি আয়করদাতার করের টাকা‌ ফেরত পাওয়া উচিত মনে করলে তা ফেরত দেওয়া হয়।‌‌‌‌ সে ক্ষেত্রে রিফান্ডের টাকা সংশ্লিষ্ট আয়করদাতার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের জমা পড়ে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।