কলকাতা: বেসরকারি বাস মিনিবাস সংগঠনের সঙ্গে পরিবহণ দফতরের বৈঠক। বেসরকারি বাসের ভাড়া নির্ধারনে রেগুলেটরি কমিটি।এই অবস্থায় যাত্রীদের চাপ সামলাতে নতুন নির্দেশিকা জারি পরিবহণ দফতরের৷ জানা গিয়েছে, এখন থেকে অটো ও ট্যাক্সিতে আসনের সমসংখ্যক যাত্রী তোলার অনুমতি দিয়েছেন পরিবহণমন্ত্রী। অর্থাৎ অটো ও ট্যাক্সিতে চালকের পিছনের সিটে ৩ জন করে যাত্রী তোলা যাবে। ক্যাবেও এই নিয়ম জারি থাকবে।

এদিকে মঙ্গলবার পরিবহণ দফতর ও বেসরকারি বাস মালিক সংগঠনের বৈঠক হয়।বৈঠক শেষেও কেউ জানাতে পারেনি, কবে থেকে বেসরকারি বাস মিনিবাস চালু হবে। তবে বেসরকারি বাস মিনিবাস সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে। ভাড়া নিয়ে দ্রুত সমাধান হবে। এমনিতেই বাসের সংখ্যা কম৷ তার উপর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঝড়-বৃষ্টিতে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা৷ বিশেষ করে অফিস ফেরত যাত্রীরা৷ দীর্ঘক্ষণ তারা বাসের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন৷

করোনা আবহে লকডাউন ৫ এর পাশাপাশি শুরু হয়েছে আনলক ১। ছাড় দেওয়া দেওয়া হয়েছে অধিকাংশ ক্ষেত্রে। কন্টেইনমেন্ট জোন বাদে ছন্দে ফিরছে কলকাতা। ১ জুন সোমবার থেকে শুরু হয়েছে আনলক ১।ফলে সপ্তাহের প্রথম দিনেই কলকাতায় ছিল মানুষের ঢল। রাস্তায় যানবাহনের তুলনায় যাত্রী সংখ্যা ছিল বেশি। শহরের প্রাণকেন্দ্র ধর্মতলা, শ্যামবাজার, বালিগঞ্জ, হাওড়া ব্রিজসহ সর্বত্র ছবিটা ছিল প্রায় একই।

যাত্রী হয়রানির ছবিটা উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম সর্বত্র দেখা গিয়েছে। সোমবারের পর মঙ্গলবারের ছবিটাও ছিল প্রায় একই৷ এদিকে ভাড়া নিয়ে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা না হওয়ায় অধিকাংশ বেসরকারি বাস মিনিবাস রাস্তায় নামেনি। তবে সরকারি বাস চলছে৷

এছাড়া একটি বেসরকারি বাস সংগঠনের বাস চলছে৷ তবে করোনা আবহে যেভাবে মানুষ রাস্তায় নেমে পড়েছে।এবং সামাজিক সুরক্ষা বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাতায়াত শুরু করেছে, তাতে আগামী দিনে করোনা সংক্রমণ আরও ছড়িয়ে পড়তে পারে । এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প