কলকাতাঃ  পুজোর আগেই সুখবর! খুশির খবর শোনালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাড়তে চলেছে ছুটি। ১৪টি সরকারি ছুটি বাড়তে চলেছে সরকারি নার্সদের। ফলে দীর্ঘদিন ২৭টি সরকারি ছুটি পেতে নার্সরা। যা নিয়ে লাগাতার আন্দোলন চালাচ্ছিলেন তারা। অবশেষে সরকারি নার্সদের আন্দোলনের কাছে মাথা নত করল স্বাস্থ্য দফতর।

শুধু তাই নয়, আন্দোলনকে শিলমোহর দিল মুখ্যমন্ত্রীর দফতর। নয়া এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে এখন থেকে ছুটির সংখ্যা বেড়ে হবে ৪১। যার ফলে ৬৭ হাজারের বেশি নার্সিং কর্মী উপকৃত হবেন।

বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, এই নির্দেশ জারি হলেও নির্দেশনামায় স্পষ্ট ভাষায় জানানো হয়েছে, জনস্বার্থে যে কোনও সরকারি হাসপাতালে ৩০ শতাংশের বেশি সরকারি নার্স যে কোনও ধরনের ছুটি একসঙ্গে নিতে পারবেন না। তবে ছুটি জমে থাকলে অবশ্যই পরে তা নেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বিধানসভার স্বাস্থ্য বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটি’র চেয়ারম্যান ও তৃণমূলপন্থী প্রোগ্রেসিভ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন-এর চেয়ারম্যান ডাঃ নির্মল মাজি বাংলা ওই সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, পুজোর মুখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে অজস্র ধন্যবাদ জানাই। কিছুদিন আগেই বিধানসভার স্ট্যান্ডিং কমিটি’র বৈঠকে দপ্তরের শীর্ষকর্তাদের নার্সদের এই দাবিপূরণের জন্য অনুরোধ করেছিলাম। মুখ্যমন্ত্রী তা পূরণ করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন আগে সরকারি নার্সদের জন্যে সুখবর ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সরকারি নার্সদের অবসরের বয়স ৬০ থেকে বেড়ে হচ্ছে ৬২। এবার সরকারি নার্সদের দীর্ঘদিনের ১৪টি সরকারি ছুটির দাবি মেনে নিল স্বাস্থ্য-দফতর।