স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপালের পদ খালি আছে। কোয়ালিফিকেশন: ১. সংবিধান পড়তে পারা, ২. রাজ্যের অফিসারদের সম্মান ও অপ্রয়োজনে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে মুখ খোলা বন্ধ রাখা, ৩. নিজের সম্মান বজায় রাখা ও নির্লজ্জভাবে রাজনীতি না করা। টুইট করে জগদীপ ধনকড়কে এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

প্রধানমন্ত্রীর ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজকে মুখ্যমন্ত্রী ‘অশ্বডিম্ব’ বলায় অসন্তুষ্ট হয়েছিলেন রাজ্যপাল। টুইট করে বলেছিলেন, ‘নেতিবাচক চিন্তাধারা’। সেইসঙ্গে কেন্দ্রের প্যাকেজকে যুগান্তকারী বলে মন্তব্য করেন তিনি। জগদীপ ধনকড়ের এই টুইটের পরই এভাবে পালটা আক্রমণ করলেন মহুয়া মৈত্র।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ফের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একাধিক অভিযোগ করে চিঠি পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। সংবিধানের ১৬৪ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাজ্যপালের প্রতি দায়িত্ব পালনে মুখ্যমন্ত্রী অনিহা দেখিয়েছেন বলে অভিযোগ তাঁর।

এরপরই আসরে নামেন মহুয়া মৈত্র ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নির্লজ্জ রাজনীতির অভিযোগ করেন তাঁরা।’পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপালের পদ খালি আছে’, টুইট মহুয়ার

এর আগেও মহুয়া ট্যুইট করে কড়া ভাষাতে লিখেছিলেন, ‘আমরা এখন একটা মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করছি। রাজভবনকে খুশি করতে এবং তার অ্যাসাইমেন্ট করার জন্য এত সময় কারও হাতে নেই।’ সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে অনুরোধের সুরে মহুয়া লেখেন, ‘মোদী-শাহ একটা উপকার করুন। এই ভদ্রলোককে দিল্লি নিয়ে যান ও লকডাউনে রাখুন।’